সতিনকে কামড়ে কাউন্সিলর কারাগারেনাটোর প্রতিনিধি সতিনকে কামড়ানোর অভিযোগে করা মামলায় নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার কাউন্সিলর শরিফুন্নেছা শিরিনকে (৩৫) কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
বুধবার দুপুরে বড়াইগ্রাম আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম খুরশিদ আলম কাউন্সিলর শরিফুন্নেছা শিরিনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে শরিফুন্নেছা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করেন।
ফারহানা জামান বড়াইগ্রামের কালিকাপুর মহলস্নার কামরম্নজ্জামানের দ্বিতীয় স্ত্রী শরিফুন্নেছা শিরিন। তার প্রথম স্ত্রীর নাম ফারহানা জামান। তারা দুজন আলাদা বাড়িতে থাকেন। গত শনিবার ফারহানার বাড়িতে শরিফুন্নেছার সঙ্গে মারামারি ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ফারহানা বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় শরিফুন্নেছাসহ চারজনের বিরম্নদ্ধে মামলাটি করেন।
নাটোর আদালত পুলিশের পরিদর্শক নাসির উদ্দিন ম-ল বলেন, কামড়ানো ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে বনপাড়া পৌরসভার কাউন্সিলর শরিফুন্নেছার বিরম্নদ্ধে মামলা করেন তার সতিন ফারহানা। এই মামলায় গতকাল দুপুরে শরিফুন্নেছা বড়াইগ্রাম আমলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন।
আসামি পক্ষের আইনজীবী লোকমান হোসেন আদালতকে জানান, তার মক্কেল নির্দোষ। তিনি একজন নির্বাচিত কাউন্সিলর। এ ছাড়া ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য বনপাড়া পৌরসভার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ অবস্থায় তার জামিন হওয়া দরকার।
অন্যদিকে মামলার বাদী ফারহানা জামান আদালতে হাজির হয়ে তার আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের বিরোধিতা করেন। তার আইনজীবী আরিফুর রহমান আদালতকে জানান, একজন জনপ্রতিনিধি হয়ে আসামি তার সতিনকে নির্মমভাবে গলায় ও মুখে কামড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছেন। এটা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। এ ছাড়া মামলার বাদী একটি কলেজের প্রভাষক। এ ঘটনায় বাদীর মানহানি হয়েছে। এ কারণে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আবেদন জানান তিনি।
শুনানি শেষে আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম খুরশিদ আলম আসামি শরিফুন্নেছা শিরিনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে তাকে নাটোর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin