নতুন বছরের পাথেয়বিগত বছরে নারীর সাফল্য ও জয়বিশ্বে নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের অবস্থান ষষ্ঠ হয়েছে। গেস্নাবাল জেন্ডার গ্যাপ-২০১৭-এর তথ্য অনুসারে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে নারী বৈষম্যের হার ছিল সবচেয়ে কম। শুধু তাই নয়, ১৪৪টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ৪৭ নম্বরে। এ বছরের ইনডেক্স তৈরি করা হয়েছে চারটি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে- অর্থনৈতিক কর্মকা-ে-নারীর অংশগ্রহণ ও অংশগ্রহণের সুযোগ, শিক্ষাবিষয়ক অর্জন, স্বাস্থ্য ও মৃতু্যর হার এবং রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন। যা নারীর উত্তরণকেই প্রমাণ করে।সোরিয়া রওনক সৌরজাগতিক নিয়মের গতিধারায় পৃথিবী আবারও তার পরিক্রমার ৩৬৫ দিন পূর্ণ করতে চলেছে। দিনপঞ্জিকা নতুন সাজে ২০১৮-এর প্রতিটি দিন, সময়কে বরণের জন্য তৈরি। কিন্তু নারী সমাজের জন্য কেমন ছিল ২০১৭ সাল?
হারানো ও প্রাপ্তির মিশেলে বাংলাদেশের নারীদের জন্য সময়টা ছিল কঠিন। এ বছর আন্ত্মর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল- 'সবাইকে নিয়ে এক সঙ্গে চলি, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ করি।' প্রতি বছর ২৫ নভেম্বর... বিস্তারিত
গরম্ন খামারি মাহফুজাঋণের টাকা দিয়ে মাহফুজা বেগম একটি গাভী ক্রয় করেন। গাভীর দুধ বিক্রয় করে পরিশোধ করেন ঋণের টাকা। পরবর্তীতে আরও ঋণ নিয়ে গাভী ক্রয় করে তৈরি করেন ছোট খামার। আজ মাহফুজার গরম্নর খামার সবার কাছে পরিচিত। প্রেরণার উৎস হিসেবে...এমএ সাইদ খোকন প্রচলিত ঋণ ব্যবস্থার বাইরে সুদমুক্ত ঋণ বরগুনার আমতলী উপজেলার প্রান্ত্মিক জনগোষ্ঠীর অনেকেরই ভাগ্যে বয়ে এনেছে পরিবর্তন। সংসারে এনেছে স্বাচ্ছন্দ্য, বদলে দিয়েছে জীবনমান। হয়ে উঠেছে স্বাবলম্বী। সঠিক তদারকির মাধ্যমে ঋণের টাকার সঠিক ব্যবহারের নজরদারি এ পরিবর্তনে রেখেছে গুরম্নত্বপূর্ণ ভূমিকা। ফলে এর সুফল ভোগ করছে ঋণগ্রহীতাদের অনেকেই। তেমনই একজন উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামের নিজাম উদ্দিনের স্ত্রী মাহফুজা বেগম। দিনমজুর স্বামী নিজাম মিয়ার একার উপার্জনে দুই মেয়ে... বিস্তারিত
অসহায় প্রতিবন্ধী আলমাস বেপারী পেল হুইলচেয়ারনৃপেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী শারীরিক প্রতিবন্ধী আলমাস বেপারী দীর্ঘদিন ঘরে শুইয়ে দিন কাটিয়েছে। বিশেষ কোনো কাজে বাইরে বের হতে হলে মা বা ভাইয়ের কোলে চড়ে যেতে হতো। বর্তমানে তার বয়স ২০ বছর হওয়ায় মা বা ভাই তাকে কোলে নিয়ে বের হতে কষ্ট হয়। তাই অনেক পাটের বস্ত্মায় ভরে পিঠে চড়ে যেতে হতো। তাছাড়া কথাও স্পষ্টভাবে বলতে না পারায় একাই নিঃসঙ্গ দিন কাটাতে হতো আলমাসের। বাবাও মারা গেছে প্রায় চার... বিস্তারিত
যৌতুক দিতে না পারায় নির্যাতনের শিকার গৃহবধূজিলস্নুর রহমান পলাশ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় স্বামীর দাবি করা যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় মোছা. রোকসানা বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরম্নদ্ধে।
নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ রোকসানা বেগম গত এক সপ্তাহ ধরে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডের বিছানায় যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।
রোকসানা বেগম সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শান্ত্মিরাম ইউনিয়নের শান্ত্মিরাম গ্রামের সুজা মিয়ার স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের পাঁচগাছি শান্ত্মিরাম গ্রামের স্কুলশিক্ষক... বিস্তারিত
এক সংগ্রামী শাহিদার গল্পএম আর মাসুদ বোঝা নয় সমাজে দৃষ্টান্ত্ম স্থাপন করতে চাই। প্রতিবন্ধী অভিশাপ নয় আশীর্বাদ হতে পারে আমাদের এই সমাজে। আর সেটাই দেখাতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ প্রতিবন্ধী শাহিদা খাতুন। শাহিদা খাতুন জন্ম থেকে দুই পা ও ডান হাত নেই। সে যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন (এমএম) মহাবিদ্যালয়ে এবার মাস্টার্স শেষ বর্ষের মেধাবী ছাত্রী। বিধিবাম তাকে দুই পায়ে ভর দিয়ে পড়ার সাথীদের সাথে দাঁড়ানোর সক্ষমতা না দিলেও সে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করে যোগ্যতায় মানুষের... বিস্তারিত
নারীবান্ধব পরিবেশনন্দিনী ডেস্ক পুরম্নষতান্ত্রিক এ সমাজে এখনো বাবা-মা পুত্রসন্ত্মান চান, কন্যা নয়। বরং কন্যাসন্ত্মান জন্মদানের অপরাধে মেয়েদেরই শাস্ত্মি দেয়া হয় বা পুত্রসন্ত্মানের জন্য দ্বিতীয় বিয়ে করেন বাবা। যৌতুকের জন্য প্রতিদিন গৃহবধূ খুন হচ্ছেন বা আত্মহত্যা করছেন। এমনকি নারী শ্রমিকরা আজও পাননি কর্মক্ষেত্রে সুষ্ঠু পরিবেশ, তাদের জন্য নেই টয়লেটব্যবস্থা, নেই আবাসিক হোস্টেল। এখনো তারা ন্যায্য মজুরি থেকে বঞ্চিত এবং কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানির শিকার। এ ছাড়া বিবাহবিচ্ছেদ, অভিভাবকত্ব, সম্পত্তির উত্তরাধিকারসহ... বিস্তারিত
উত্তরাধিকার হিসেবে সম্পদ বণ্টন প্রথানন্দিনী ডেস্ক একজন নারী যদি পুরম্নষের মতো কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ এবং সমমজুরি পান, তাহলে কি নারীর সমাজে অধিকার প্রতিষ্ঠা হয়ে গেল? তা ছাড়া একজন নারী মুক্তভাবে চলাফেরা করাটা কি তার সামাজিকভাবে সমঅধিকারপ্রাপ্তির সূচক হিসেবে পরিগণিত করা হবে? এভাবে নারীর সমঅধিকারপ্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত হয় না। নারী ও পুরম্নষের বৈষম্য সৃষ্টির মূল কারণ হলো উত্তরাধিকার হিসেবে সম্পত্তি পাওয়ার বিষয়টি। নারী ও পুরম্নষের বৈষম্য সৃষ্টির মূল দেয়াল হলো উত্তরাধিকার হিসেবে সম্পদ... বিস্তারিত
ক্ষুদ্রশিল্প ও নারীনন্দিনী ডেস্ক রংপুরের হারিয়ে যাওয়া 'শতরঞ্জি' জেগে উঠেছে। ফিরে পেয়েছে পুরনো ঐতিহ্য। এই শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে কয়েক হাজার নারী-পুরম্নষ কাজ করছেন। তারা স্বাবলম্বী হয়েছেন। তৈরি করছেন নকশাখচিত শতরঞ্জি। এই শতরঞ্জি এখন বিশ্বের ৩৬টি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। হস্ত্মজাতশিল্প থেকে বছরে বৈদেশিক মুদ্রা আয় হচ্ছে প্রায় ৪০ লাখ মার্কিন ডলার। শতরঞ্জিপলস্নীতে নারী- শতরঞ্জি বুননে ব্যস্ত্ম। শিরিনা বেগম (৩৫) বললেন, 'দীর্ঘ ১০ বছর থেকে কাজ করছি।' রংপুর সরকারি কলেজের উচ্চ... বিস্তারিত
 
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin