সুযোগের অপেক্ষায় লিভিংস্টোনক্রীড়া ডেস্ক লিয়াম লিভিংস্টোনপ্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডের টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন লিয়াম লিভিংস্টোন। দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে জাতীয় দলের সঙ্গে পাড়ি জমাবেন নিউজিল্যান্ডে। তার আগে নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি দেখছেন না ল্যাঙ্গাশায়ারের অধিনায়ক। মূল একাদশে নামার সুযোগের অপেক্ষাতেই এখন তিনি। আর শেষতক তা পেলে ব্যাট হাতে নিজেকে প্রমাণ করতে চান লিভিংস্টোন।
গ্যারি ব্যালেন্সের পরিবর্তে দলে ইংল্যান্ডের দলে ডাক পেয়েছেন লিভিংস্টোন। সম্প্রতি শেষ হওয়া অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাশেজে বাজে ফর্মের কারণে বাদ পড়েছেন ব্যালেন্স, সেখানে ৪-০ ব্যবধানে হারতে হয়েছে ইংলিশদের। এতে ধারণা করা হচ্ছে, কিউইদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে মূল একাদশে লিভিংস্টোনের সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা অনেকটা বেশি। সেই সুযোগ লুফে নিতে মরিয়া এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান, 'দলে স্থান পাওয়াটা ভালো হবে এবং আশাবাদী, আমি কি করতে পারি তা দেখাতে পারব।'
২০১৭ সালের জুলাইয়ে ইংল্যান্ডের হয়ে দুটি আন্ত্মর্জাতিক টি২০ ম্যাচ খেলেছেন লিভিংস্টোন। তাতে সর্বমোট ১৬ রান করতে পেরেছিলেন তিনি। এতেও মাথাব্যথা নেই তার। লিভিংস্টোনের দাবি, টেস্টই পছন্দ তার এবং অভিজাত ফরম্যাটে খেলার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুতও তিনি, 'টি২০ আমার জন্য ভালো অভিজ্ঞতা ছিল, তবে লাল বলের খেলা সম্পূর্ণ আলাদা। টি২০ ক্রিকেটের চেয়ে লাল বলের খেলা নিয়ে আমি আরও বেশি নিশ্চিত। তাই নিজের দক্ষতার ওপর বিশ্বাস রেখে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস নিয়েই আমি সেখানে (নিউজিল্যান্ড) যাব।'
বিগত সময়ে বিশ্বজুড়ে টি২০ লিগ খেলেই বেশিটা সময় পার করেছেন লিভিংস্টোন। তবে কিছুদিন আগে লায়ন্সের হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় খেলতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে অনেক কিছুই শিখতে পেরেছেন বলে জানালেন লিভিংস্টোন, 'আমার প্রকৃত লক্ষ্য, ইংল্যান্ডের হয়ে সাদা জার্সিতে খেলা। আমি বিশ্বজুড়ে টি২০ লিগ খেলে বিরক্ত হওয়ার পথে কিন্তু এখনো ম্যাচে নিজের শক্ত অবস্থানটা দেখতে পারছি না। লাল বলের খেলায় বিভিন্ন জায়গা নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা ছিল আমার। যেমনটা আমি ব্রিসবেনে পৌঁছার পর প্রথম দুই সপ্তাহে করতে পেরেছি।'
অ্যাশেজে জো রম্নটদের অবস্থা মোটেও সন্তুষ্টিকর ছিল না। মর্যাদার ওই আসরে জয়হীন থাকতে হয়েছিল সফরকারীদের। তাই বলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের পিছিয়ে রাখতে নারাজ লিভিংস্টোন। বরং ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দলের হয়ে খেলতে মুখিয়ে তিনি, 'অবশ্যই ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ সিরিজটা কঠিন ছিল, সকলে এটা জানে। তবে আমি নিশ্চিত, পুরো আত্মবিশ্বাস নিয়েই প্রত্যেকে নতুন সিরিজ শুরম্ন করবে। আমি জানি, এটা খুবই মেধাবী খেলোয়াড়দের গ্রম্নপ। আমি এখানে ঢুকতেই মুখিয়ে আছি।'
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close