ভেনেজুয়েলায় সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকি মার্কিন প্রেসিডেন্টেরযাযাদি ডেস্ক ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নিকোলাস মাদুরোভেনেজুয়েলায় চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে দেশটিতে সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার দেয়া এক বিবৃতিতে ট্রাম্প জানান, ভেনেজুয়েলায় যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক হস্তক্ষেপের বিষয়টি উড়িয়ে দিচ্ছেন না তিনি। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই বক্তব্যকে 'পাগলামি' বলে মন্তব্য করেছে কারাকাস সরকার। এদিকে, ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর সঙ্গে বৈঠক করতে রাজি হয়েছেন ট্রাম্প। তবে শর্ত হিসেবে তিনি দেশটিতে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার কথা বলেছেন। সংবাদসূত্র : বিবিসি, আল-জাজিরা, রয়টার্স
কয়েকমাস ধরেই ল্যাতিন আমেরিকার দেশ ভেনেজুয়েলায় রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। ২০১৩ সাল থেকে ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর বিপক্ষে রাজধানী কারাকাসসহ অন্য বড় শহরগুলোতে লাগাতার বিক্ষোভ করছেন বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীরা। প্রেসিডেন্ট মাদুরো এদের 'সন্ত্রাসী' হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়ে বিরোধীদের দমনে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করলেও বিক্ষোভ বন্ধ করতে পারেননি। এরই মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে নিহত হয়েছেন ৫০ জনের বেশি। এ ছাড়া পুলিশের একটি হেলিকপ্টার চুরি দেশটির সুপ্রিম কোর্টে হামলার মধ্য দিয়ে সরকারবিরোধী অভ্যুত্থানের প্রচেষ্টাও চালিয়েছেন অস্কার পেরেজ নামে ভেনেজুয়েলার সাবেক এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা।
সরকারবিরোধী বিক্ষোভের মুখেই চলতি বছরের মে মাসে গণপরিষদ নির্বাচনের জন্য দেশজুড়ে ভোটগ্রহণের ঘোষণা দেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো। ভেনেজুয়েলায় সংবিধান সংশোধন উপলক্ষে গত মাসের শেষের দিকে আয়োজিত ওই নির্বাচনে নিজেকে বিজয়ী দাবি করেন তিনি। তবে বিরোধীদের পক্ষ থেকে ওই নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে ফল প্রত্যাখ্যান করলে দেশটির রাজনৈতিক পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটে।
শুক্রবার সন্ধ্যায় ট্রাম্প বলেন, 'সেখানকার লোকজন কষ্ট পাচ্ছে এবং মারা যাচ্ছে।' এর পরপরই তিনি বলেন, 'ভেনেজুয়েলার জন্য আমাদের অনেক বিকল্প রয়েছে। এর মধ্যে সামরিক হস্তক্ষেপের সুযোগও রয়েছে।' তিনি বলেন, 'যুক্তরাষ্ট্র থেকে অনেক দূরে অবস্থিত বিশ্বের এমন সব জায়গাতেই আমাদের সেনা মোতায়েন রয়েছে। ভেনেজুয়েলা আমাদের থেকে খুব বেশি দূরে নয়।' প্রসঙ্গত, মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনার আগ্রহ প্রকাশের একদিন পরই ভেনেজুয়েলার প্রতি এমন কঠোর বার্তা দিলেন ট্রাম্প।
এদিকে, ভেনেজুয়েলায় সামরিক অভিযানে ট্রাম্পের হুমকিকে পাগলামি বলে অভিহিত করেছে মাদুরো সরকার। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় দেশটির এক মন্ত্রী বলেন, 'প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এ ধরনের হুমকি কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।' দেশটির যোগাযোগমন্ত্রী ইরনেস্তো ভিলেগাস বলেন, 'যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের বক্তব্য ভেনেজুয়েলার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের ওপর চরম হুমকি হিসেবে দেখছি আমরা।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
monobhubon
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin