বাণিজ্যিক কোচিং-গাইড বই নিষিদ্ধের দাবিযাযাদি রিপোর্ট সকল বাণিজ্যিক কোচিং বন্ধ এবং পাঠ্যপুস্তকের বাইরের নোট ও গাইড বই নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছে শিক্ষক অধিকার ফোরাম নামের একটি সংগঠন।
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।
প্রায় ঘণ্টাব্যাপীর এ মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে বক্তারা বলেন, বর্তমানে শিক্ষার্থীরা ক্লাসে মনোযোগী নয়। তারা রঙ-বেরঙের কোচিংয়ে ছুটছে। কোচিংয়ের পড়ার চাপে তারা স্কুলের পড়া প্রস্তুত করতে সময় পায় না। পিইসি এবং জেএসসি পরীক্ষার তিন মাস আগে থেকে স্কুলগুলোতে উপস্থিতি কমে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বাণিজ্যিক কোচিংয়ে মডেল টেস্ট দিতে ব্যস্ত। ফলে শিক্ষার মান কমে যাচ্ছে।
তারা বলেন, সরকার নোট, গাইড নিষিদ্ধ করছে। তারপরও বাজারে প্রকাশ্যে গাইড বিক্রি হচ্ছে। শিক্ষক গাইড পড়ালে তার জেল-জরিমানার বিধান রয়েছে। কিন্তু গাইড কোম্পানির বিরুদ্ধে সরকারের কোনো নজরদারি নেই।
ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় শিক্ষকদের হয়রানি করা হচ্ছে অভিযোগ করে মানববন্ধন থেকে বলা হয়, কয়েকদিন ধরে শিক্ষকদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। তারা কোচিং করছে কিনা সে তথ্য নেয়া হচ্ছে। অথচ বিভিন্ন কোম্পানি কোচিং বাণিজ্য করছে, প্রশ্ন ফাঁস করছে। তাদের বিরুদ্ধে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।
মানববন্ধনের বক্তারা আরও বলেন, সরকার শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি করলেও, সে অর্থ বাড়িওয়ালাদের পকেটে চলে যাচ্ছে। শিক্ষকরা কোনোমতে জীবন নির্বাহ করছে। বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন কার্যকর করা হচ্ছে না। অথচ শিক্ষা আইন পাস করার আগেই শিক্ষকদের হয়রানি করা হচ্ছে। শিক্ষা আইন পাস করার আগে বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন কার্যকর করতে হবে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
monobhubon
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin