ত্রাণের টাকায় 'ভাগ বসালেন' আ. লীগ নেতাকুড়িগ্রাম প্রতিনিধি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে বানভাসিদের মধ্যে রেড ক্রিসেন্টের দেয়া ত্রাণের টাকা কেড়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে।
তবে কচাকাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি ও কচাকাটা ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আতাউর রহমান তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
কচাকাটার ব্যাপারিটারী গ্রামের মাহেলা বেগম, মরিয়ম বেগম, নূরবানু ও হাসনা বেগমসহ অনেকের অভিযোগ, আতাউর রহমান ও ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মমিনুর রহমান তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে জোড়পূর্বক ৫০০ টাকা করে নিয়ে গেছেন।
তারা বলেন, গত শুক্রবার রেড ক্রিসেন্ট কচাকাটা ইউনিয়নে চারশ বন্যাকবলিত পরিবারে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং প্রতি পরিবারকে নগদ এক হাজার চারশ টাকা করে দেয়।
তাদের অভিযোগ, যারা এই ত্রাণ সহায়তা পেয়েছেন তাদের কাছে প্রতিনিধি পাঠান আতাউর রহমান। তিনি প্রত্যেক সুবিধাভোগীর কাছ থেকে চারশ থেকে পাঁচশ টাকা করে দাবি করেন।
কারো কারো কাছে ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মমিনুর রহমান টাকা দাবি করেন বলে তাদের অভিযোগ।
এ সময় তারা হুমকি দিয়ে বলেন, 'কিছু পেতে গেলে কিছু দিতে হয়। যারা টাকা দিবে না, তাদের পরবর্তী সময়ে কোনো কিছুতেই নাম দেয়া হবে না', অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।
এ ব্যাপারে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা ম-ল বলেন, 'চারশ হতদরিদ্র ত্রাণ পাওয়া মানুষর কাছ থেকে তারা প্রায় দুই লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। বিষয়টি আমরা উপজেলা ও জেলা কমিটিকে জানিয়েছি।'
কচাকাটা ইউপি সদস্য রুহুল আমীন বলেন, 'আমার এলাকায় সবার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে বলে অভিযোগ পেয়েছি।'
এ ব্যাপারে কচাকাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, 'বিষয়টি বিভিন্ন মাধ্যমে শোনা যাচ্ছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।'
টাকা গ্রহণের কথা অস্বীকার করে কচাকাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি আতাউর রহমান বলেন, 'যারা সুবিধা পায়নি তারাই এ সব কথা ছড়াচ্ছে। এ সব মিথ্যা।'
তখন ফোনে কথপোকথনের রেকর্ড থাকার কথা বললে তিনি চুপ করে থাকেন।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close