হরতাল জামায়াতের রাজপথ আওয়ামী লীগের দখলেযাযাদি রিপোর্ট রাজধানীসহ সারাদেশে জামায়াতে ইসলামী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করলেও মাঠে ছিল না সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। তবে রাজপথে ছিল ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।
সকালে সরেজমিন পরিদর্শনকালে দেখা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাজধানীর বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ রাস্ত্মার মোড়ে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সংগঠনের বিপুল নেতাকর্মী অবস্থান নিয়েছেন। হরতাল তথা জামায়াতবিরোধী মুহুর্মুহু সেস্নাগানে রাজপথ কাঁপাচ্ছেন তারা। এ ছাড়া হরতালে যেকোনো ধরনের নাশকতা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ রাস্ত্মায় সশস্ত্র অবস্থায় অবস্থান গ্রহণ করতে দেখা যায়।
এ প্রতিবেদক সকাল ৭টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত্ম রাজধানীর ধানম-ি, লালবাগ, কলাবাগান, শাহবাগ, জিগাতলাসহ বিভিন্ন এলাকায় পরিদর্শনকালে হরতাল আহ্বানকারী জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীদের অবস্থান কিংবা হরতালের পক্ষে কোনো মিছিল বা সেস্নাগান দেখতে পাননি।
অন্যদিকে সকালের দিকে রাজধানীর রাস্ত্মাঘাটে যানবাহন তুলনামূলকভাবে কম দেখা গেলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজপথে বাস, মিনিবাস, প্রাইভেটকার, মোটরসাইকেল, রিকশাসহ বিভিন্ন যানবাহনের সংখ্যা বাড়তে থাকে। কোথাও কোথাও যানজটেরও সৃষ্টি হয়। তবে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুলে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি তুলনামূলকভাবে কম ছিল। অনেক অভিভাবক ভয়ে তাদের সন্ত্মানদের স্কুলে পাঠাননি।
আজিমপুর নতুন পল্টন লাইনের বাসিন্দা শাহজাহান নামে এক ব্যবসায়ী জানেন না বৃহস্পতিবার হরতাল। নিউমার্কেটের সামনে পুলিশ সদস্যদের দাঁড়িয়ে থাকা দেখে তিনি জানতে চান কী হয়েছে। সকাল থেকে জামায়াতে ইসলামীর ডাকা হরতাল চলছে শুনে মুচকি হেসে বলেন, 'হরতালের অহন আর ভাত নাই। হরতাল ডাইক্যা বাড়িতে বইয়া থাকলে কী আর হরতাল হয়।'
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close