সাথীর আত্মহত্যাবগুড়ায় বখাটে ও তার বাবা জেলেস্টাফ রিপোর্টার বগুড়া বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার জিয়ানগরে ইভটিজিংয়ের শিকার হয়ে নবম শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী রোজিফা আক্তার সাথী আত্মহত্যার ঘটনায় বখাটে যুবক হুজাইফা ইয়ামিন ও তার বাবা আমিনুর রহমানকে বৃহস্পতিবার জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আব্দুলস্নাহ আল মামুনের আদালতে তারা হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে গতকাল তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।
সেই সাথে তাদের দুজনকেই সাত দিন করে রিমান্ডে নেয়ার জন্য দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা আবেদন করেছেন। আদালত আগামী ১৫ অক্টোবর ঐ আবেদনের শুনানির দিন ধার্য করেছেন।
অপরদিকে, ঐ ঘটনার একদিন পর দুপচাঁচিয়ার মোস্ত্মফাপুরে ইভটিজিংয়ের শিকার হয়ে মিলি খাতুন নামে আরো এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।
নিহত মিলি উপজেলার মোস্ত্মফাপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের মেয়ে। এ ঘটনায় মিলির মা বেলী বেগম বাদী হয়ে দুপচাঁচিয়া থানায় দুইজনের বিরম্নদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। তবে পুলিশ বলেছে, আসামিদের গ্রেপ্তারে বিশেষ অভিযান চলছে।

শেরপুরে সীমান্ত্ম দিয়ে ৫
বাংলাদেশি হস্ত্মান্ত্মর
শেরপুর প্রতিনিধি
অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে বিভিন্ন মেয়াদে ভারতে কারাভোগের পর শেরপুরের নালিতাবাড়ীর নাকুগাঁও চেকপোস্ট দিয়ে পাঁচ বাংলাদেশিকে হস্ত্মান্ত্মর করেছে বিএসএফ।
তারা হলো শেরপুরের নালিতাবাড়ী ও শ্রীবরদী উপজেলার শাহাজুল হকের ছেলে মমিন মিয়া (৩৫), আবদুল মুন্নাফের ছেলে মিজানুর রহমান (২০), জবেদ আলীর ছেলে মনু মিয়া (২২) এবং কুড়িগ্রাম রৌমারী উপজেলার গেদু মিয়ার ছেলে গেটুমিয়া (৪০) ও আবদুল হকের ছেলে শাকিরম্নল ইসলাম (২২)।
নাকুগাঁও ইমিগ্রেশন পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তারা শেরপুর ও কুড়িগ্রাম সীমান্ত্মের বিভিন্ন এলাকা দিকে ভারতে অনুপ্রবেশ করে। এ সময় ভারতের সীমান্ত্মরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) হাতে তারা আটক হন। পরে পুলিশের মাধ্যমে তাদের আদালতের মাধ্যমে তুরা জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। সেখানে বিভিন্ন মেয়াদে কারাভোগের পর মঙ্গলবার বিকালে নাকুগাঁও এবং ভারতে কিলস্নাপাড়া জিরো পয়েন্ট দিয়ে ওই পাঁচ বাংলাদেশিকে হস্ত্মান্ত্মর করা হয়েছে।
এ সময় ডালু ইমিগ্রেশন পুলিশের ইনচার্জ ডি হাজং, নালিতাবাড়ী থানার এসআই নজরম্নল ইসলাম খানসহ বিএসএফ'র কিলস্নাপাড়া বিওপি কমান্ডার অজয় দাস ও বিজিবির হাতী পাগার কোম্পানি কমান্ডার সাইফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close