বাহুবলে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহতবাহুবল (হবিগঞ্জ) সংবাদদাতা হবিগঞ্জের বাহুবলে পুলিশের সঙ্গে ডাকাত দলের বন্দুকযুদ্ধে মদন মিয়া ওরফে সুজন মিয়া (৩৪) নামের এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে গুলিসহ একটি পাইপগান উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোর চারটার দিকে উপজেলার দারাগাঁও চা বাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ডাকাত সুজন মিয়া উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের শাহপুর গ্রামের রহমান মিয়ার ছেলে। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন বাহুবল মডেল থানার এএসআই সোহেল শাহ ও কনস্টেবল ইমরান মোলস্না।
পুলিশ জানায়, হত্যা ও ডাকাতিসহ সাতটি মামলার আসামি কুখ্যাত ডাকাত মদন মিয়া ওরফে সুজন মিয়াকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার বিকালে অভিযান চালিয়ে উপজেলার মিরপুর বাজার থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অস্ত্র উদ্ধার ও সহযোগীদের গ্রেপ্তার করতে মদন মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে বৃহস্পতিবার ভোর চারটার দিকে দারাগাঁও চা বাগান এলাকায় অভিযানে নামে পুলিশ। চা-বাগান এলাকার ২ নম্বর সেকশনের কাছে মাটির রাস্ত্মায় পৌঁছলে চা গাছের নিচে ওৎপেতে থাকা ডাকাতদল পুলিশে ওপর পাইপগানের গুলি ছোড়লে কোনো কিছু বুঝে উঠতে না পেরে পুলিশও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় পুলিশের হাত থেকে ডাকাত মদন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে সহযোগীদের ছোড়া পাইপগানের গুলিতে গুরম্নতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে পুলিশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় পাইপগান, তিন রাউন্ড গুলি, দুটি গুলির খোসা, তিনটি রামদা, একটি চাকু ও একটি গামছা উদ্ধার করেছে পুলিশ।
এ ঘটনায় এএসআই সোহেল শাহ ও কনস্টেবল ইমরান মোলস্না আহত হন। তাদের বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close