আনসারকে পদ্মায় ফেলে পাঁচ জেলের পলায়নফরিদপুর প্রতিনিধি ফরিদপুরে এক আনসার সদস্যকে ধাক্কা দিয়ে ট্রলার থেকে পদ্মা নদীতে ফেলে দিয়ে পালিয়ে গেল পাঁচ জেলে। এর আগে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ধরায় ওই জেলেদের আটক করেছিল ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার রাত ৮টার দিকে ফরিদপুর সদর উপজেলার নর্থ চ্যানেল ইউনিয়নের গোলডাঙ্গি কলাবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
পরে নদী থেকে প্রায় অচৈতন্য অবস্থায় আনসার সদস্য উপজেলা প্রশিক্ষক রাজিবুল ইসলামকে (৩৬) উদ্ধার করে প্রথমে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতাল ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থনান্ত্মর করা হয়।
জানা যায়, এ অভিযানে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের দুইজন নির্বাহী হাকিম ইসরাত জাহান ও নুসরাত জাহান নেতৃত্ব দেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও আদালত সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে একটি স্প্রিডবোট, একটি ছোট ট্রলার ও একটি বড় ট্রলার নিয়ে নর্থ চ্যানেল ইউনিয়নের গোলডাঙ্গি কলাবাগান এলাকায় ভ্রমাম্যাণ আদালতের এ অভিযান শুরম্ন হয়। স্প্রিডবোট নিয়ে আদালতের একটি দল অভিযান চালিয়ে এক জেলেকে আটক করে ছোট ট্রলারে করে তাকে পাঠানো হয় বড় ট্রলারে পৌঁছে দিতে। ওই ছোট ট্রলারে ওই আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছিলেন।
ছোট ট্রলারে করে বড় ট্রলারে আসার সময় পথে আরও চার জেলেকে পেয়ে তাদেরও ট্রলারে তুলে নেয়া হয় এবং পাঁচ জেলেকেই দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয় ট্রলারে। একপর্যায়ে ওই জেলেরা কৌশলে দড়ি খুলে আনসার সদস্যকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দিয়ে সাঁতরিয়ে পালিয়ে যায়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলা আনসার কমান্ডার এনামুল খান বলেন, আনসার সদস্য রাজিবুলকে আঘাত করে অপরাধীরা পালিয়ে যায়। অনেক সময় নদীতে পড়ে ছিল সে (রাজিবুল) এজন্য সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তবে বর্তমানে তার অবস্থা উন্নতির দিকে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close