তরম্নণদের পক্ষে সরব তামিমতারা (নির্বাচকরা) যদি মনে করে বাংলাদেশের হয়ে ভালো করার ওর (খেলোয়াড়) সামর্থ্য আছে, তাকে তাহলে যথেষ্ট সুযোগ দেয়া উচিতক্রীড়া প্রতিবেদক শ্রীলংকার বিপক্ষে টি২০ সিরিজে টাইগার স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন পাঁচ নতুন মুখ। বাদ পড়েছেন আটজন, ফিরেছেন তিনজন। ২০২০ টি২০ বিশ্বকাপ মাথায় রেখে নতুনদের বাজিয়ে দেখতে চাইছেন নির্বাচকরা। প্রশ্ন হলো যোগ্যতা প্রমাণে কতটা সময় পাবেন তারা, আন্ত্মর্জাতিক মঞ্চে শুরম্নতেই বাজিমাত না করতে পারলেই কি ছুড়ে ফেলা হবে তাদের? জাতীয় দলের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তামিম ইকবাল শুরম্নর পারফরম্যান্স দিয়েই একজন ক্রিকেটারকে মূল্যায়ন করার পক্ষে নন। নতুনদের পর্যাপ্ত সুযোগ দেয়ার পক্ষে আওয়াজ তুলেছেন।
মঙ্গলবার তরম্নণ ক্রিকেটারদের নিয়ে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে তামিম বলেন, 'আমার কাছে মনে হয় যে কোনো ক্রিকেটার লাগাতার দুই বা তিন বছর ঘরোয়াতে পারফর্ম করছে, জাতীয় দলে আসার পর তার একটা বা তিন-চারটা খারাপ ম্যাচ হতেই পারে। তাকে ওই সময় সরিয়ে দেয়াটা আমার মনে হয় না কোনো সমাধান। আমি মনে করি, যখনই তাকে নির্বাচন করা হয় তার ওই সক্ষমতা আছে এটাই চিন্ত্মা করা হয়। এজন্য যথেষ্ট সুযোগ দিতে হবে।'
তিনি আরও বলেন, 'এমন না আমরা অনেক অনেক খেলোয়াড় প্রস্তুত করছি। আমরা খেলোয়াড় প্রস্তুত করছি, হয়ত এইচপি ও অনূর্ধ্ব-১৯ দল থেকে আসছে। কিন্তু যখন একজন আসে, অন্ত্মত সবার সন্তুষ্টির জন্য তাকে যথেষ্ট সুযোগ দেয়া উচিত। কারণ আমার মনে হয় ঘরোয়া ক্রিকেট ও আন্ত্মর্জাতিতক ক্রিকেটের মধ্যে একটা বড় গ্যাপ থাকে। ওখানে খাপ খাইয়ে নেয়ারও ব্যাপার আছে। তারা (নির্বাচকরা) যদি মনে করে বাংলাদেশের হয়ে ভালো করার ওর সামর্থ্য আছে তাকে তাহলে যথেষ্ট সুযোগ দেয়া উচিত।'
টি২০ দলে নতুনরা হলেন আরিফুল হক, আবু জায়েজ রাহী, মেহেদী হাসান, জাকির হাসান ও আলিফ হোসেন ধ্রম্নব। এদের মধ্যে অফ-স্পিনার মেহেদী বিপিএলে খেলেছেন তামিমের দল কুমিলস্না ভিক্টোরিয়ান্সে। মেহেদী, আরিফুল ও রাহীকে নিয়ে বেশ আশাবাদী তামিম, 'আমি দুই-তিনজনের নাম উলেস্নখ করেই বলতে পারি, বিশেষ করে রাহী, আমার কাছে মনে হয় ওয়েল ডিজার্ভিং। কারণ শেষ দুই বছর ধরে বিপিএলে টপ পারফর্মার বোলার হিসেবে। আরিফুল হকও শেষ দুই-তিন বছর ধরে বিপিএলে সমানভাবে ভালো খেলে যাচ্ছে। আরও দুজন নতুন আছেন, একজন (মেহেদী) আমার সাথে খেলেছে। আমার কাছে মনে হয় না যে এই দুই ম্যাচ অথবা সামনে আরও তিন-চারটা ম্যাচ দেখে ওকে মূল্যায়ন করা উচিত। কারণ এখনও অনেক তরম্নণ।'
বাংলাদেশ ওপেনার বলেন, 'আশা করব প্রথম ম্যাচ থেকেই নিজের একটা অবস্থান টিমে করে ফেলবে যখনই ও খেলে। ভালো একজন খেলোয়াড় কখনও নিশ্চয়তা দিতে পারবে না যে সে প্রথম ম্যাচ বা প্রথম তিন ম্যাচ ভালো খেলবে। হয়তোবা ৪ বা ৫ নাম্বার ম্যাচ থেকেও ভালো খেলতে পারে। এমনও হতে পারে প্রথম ম্যাচ থেকেও ভালো খেলতে পারে। আমি নিশ্চিত ওদের এটা ভেবেই নির্বাচন করেছেন যে ওদের সামর্থ্য ও স্কিল আছে আন্ত্মর্জাতিক পর্যায়ে টি২০ ভালো খেলার। আশা করবো ওদের এজন্য পর্যাপ্ত সময় দেয়া হবে।'
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close