পরবর্তী সংবাদ
সংবাদ সংক্ষেপ১টা সিগারেটেই বাড়তে
পারে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি

ধূমপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এসব কিছু জানার পরও সারা বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ ধূমপান করেন। প্যাকেটের পর প্যাকেট নিমেষে ধোঁয়া করে বাতাসে উড়িয়ে দেন। শরীর স্বাস্থ্যের কতটা ক্ষতি হচ্ছে, সেটা একবার ভেবেও দেখেন না। সম্প্রতি একটি তথ্য প্রকাশ হয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, দিনে ১০টা কিংবা ২০টা নয়, হার্ট অ্যাটাক হতে পারে দিনে ১টা মাত্র সিগারেট খেলেই।
ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের অধ্যাপক অ্যালান হ্যাকশ এই প্রসঙ্গে বলেন, 'আমরা মনে করি, সারাদিনে বুঝি প্রচুর সিগারেট খেলে তবেই হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে। আসলে তা নয়। ২০টা খেতে হবে না। যদি কোনো ব্যক্তি সারাদিনে ১টা মাত্র সিগারেটও খান, তাহলেও তার মধ্যে হৃদরোগের হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। অর্থাৎ, সেই ব্যক্তির মধ্যে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোক এবং ফুসফুসের ক্যান্সারের সম্ভাবনা বেড়ে যায়।'

য় যাযাদি হেলথ ডেস্ক

দুধ ঠা-া না গরম
স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী?

'দুধ না খেলে, হবে না ভালো ছেলে...' ছেলে হোক কিংবা মেয়ে, দুধ খেলে কে কতটা ভালো হবে তা জানা নেই, কিন্তু দুধ খেলে স্বাস্থ্যের অনেক উপকার হবে, তা চিকিৎসকরাই পরামর্শ দিয়ে থাকেন। দুধে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম, ভিটামিন ডি, পটাশিয়াম রয়েছে। বেশির ভাগ মানুষই দুধ গরম খেতে পছন্দ করেন। আবার কিছু মানুষ পছন্দ করেন ঠা-া দুধ। কিন্তু ঠা-া দুধ এবং গরম দুধের মধ্যে তফাৎটা কোথায়? সত্যিই কি দুয়ের মধ্যে স্বাস্থ্যকর উপাদানে কোনো পার্থক্য রয়েছে? তাহলে জেনে নিন কোন প্রকারের দুধ স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশি স্বাস্থ্যকর।
গরম দুধ কেন স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী?
গরম দুধের সব থেকে বড় উপকারিতা হলো, গরম দুধ খুব তাড়াতাড়ি হজম হয়ে যায়। ডায়রিয়া প্রতিরোধ করে, ভালো ঘুমের জন্য খুবই উপকারী গরম দুধ।
ঠা-া দুধ কেন স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী?
ঠা-া দুধেরও উপকারিতা অনেক। প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম থাকার জন্য সব এসিড শুষে নিয়ে বদহজম হওয়া থেকে মুক্তি দেয়। সকালে ঠা-া দুধ খেলে সারাদিন শরীর হাইড্রেট থাকে।
তাহলে ঠা-া নাকি গরম? কোন দুধ খাবেন?
দুধ এমনিতেই সুপারফুড। ঠা-া হোক কিংবা গরম, দুই প্রকারের দুধেই প্রচুর উপকারিতা রয়েছে। তবে, আপনার স্বাস্থ্যের জন্য কোন দুধ বেশি উপকারী, তা চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে তবেই খান।

য় যাযাদি হেলথ ডেস্ক

গর্ভনিরোধক পিলের সাইড
অ্যাফেক্ট আছে?

অনেক মহিলারই এটি অবশ্যম্ভাবী প্রশ্ন? অনেকে এ নিয়ে চিকিৎসকদের জিজ্ঞাসা করেন? কেউ আবার জিজ্ঞাসা করতে ইতস্ত্মত করেন গর্ভধারণ রোধে এই পিল ব্যবহার করা হয় সাধারণত সুস্থ শরীরকে ব্যস্ত্ম করতে চায় না কেউই তাই সেক্স করার আগে কনডোম ব্যবহার করা প্রয়োজন? কিন্তু অনেকসময় হঠাৎই অনেক কিছু হয়ে যায়? ইমার্জেন্সি অনেকেরই হয়? তার জন্য নিতে হয় কনট্রিসেপটিভ পিল।?
নিয়মিত কখনই কনট্রিসেপটিভ পিল ব্যবহার করা উচিত নয়।? কিন্তু মাঝে মধ্যে এটি ব্যবহার করা যেতেই পারে? কিন্তু যেহেতু এটি হরমোনের ওপর কাজ করে তাই শরীরে কিছু পরিবর্তন আসতে পারে? এক কথায় বলতে গেলে এর কিছু সাইড অ্যাফেক্ট রয়েছে? তবে তা সাময়িক।

য় যাযাদি হেলথ ডেস্ক
 
পরবর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close