জিপিএ-৫ বিক্রিঅদ্বৈত রায়ের রাজেন্দ্র কলেজে যোগদানে ক্ষোভযাযাদি রিপোর্ট আড়াই লাখ টাকায় জিপিএ-৫ বিক্রি করতে গিয়ে ধরা খাওয়া অদ্বৈত কুমার রায়কে ফরিদপুরের রাজেন্দ্র কলেজে বদলি করা হয়েছে। সোমবার তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বদলি আদেশ নিয়ে রাজেন্দ্র কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগে যোগ দিয়েছেন। আর এ খবর জানার পর তোলপাড় চলছে ফরিদপুরে।
কলেজের শিক্ষার্থী ছাড়াও ফরিদপুরের সাধারণ মানুষ ও অভিভাবকরা ফরিদপুরের একটি স্বনামধন্য কলেজে যোগদানের খবরে তীব্র প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গত দুইদিন ধরে এ নিয়ে চলছে তুমুল নিন্দাবাদ। ফরিদপুরের শিক্ষার মান যাতে বিনষ্ট না হয়, সে জন্য অবিলম্বে তারা রাজেন্দ্র কলেজ থেকে অদ্বৈত কুমার রায়কে বদলির দাবি তুলেছেন।
রাজেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোশাররফ হোসেন অবশ্য জানান, তিনি কলেজের শিক্ষার্থী ও ফরিদপুরের সাধারণ মানুষের ক্ষোভের বিষয়টি জেনেছেন। তবে এখানে তার কোনো হাত নেই। সিদ্ধান্ত্মটা মন্ত্রণালয়ের। বিষয়টি তিনি ডিজিকে জানিয়েছেন।
প্রাপ্ত অভিযোগে জানা যায়, ঢাকা বোর্ডের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক পদে থাকাকালে অদ্বৈত কুমার রায় একটি সিন্ডিকেট করে পাঁচ লাখ টাকার বিনিময় জিপিএ-৫ সহ ভিন্ন ভিন্ন সার্টিফিকেট বিক্রিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। এ নিয়ে সচিত্র অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রচারিত হয় দেশের একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলে। এতে শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে অদ্বৈত রায়সহ চক্রের সদস্যদের কিভাবে মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে জিপিএ-৫ সার্টিফিকেট পাওয়া যায়, এর প্রমাণ বেরিয়ে আসে। তবে অদ্বৈত কুমার রায় এসব অভিযোগ সাংবাদিকদের কাছে অস্বীকার করেন।
ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি সাংবাদিক আহম্মদ ফিরোজ রাজেন্দ্র কলেজে অদ্বৈত কুমার রায়ের বদলির খবরে বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, এমন একজন দুর্নীতিবাজকে চাকরি থেকে কেনো বরখাস্ত্ম করা হয়নি সেটিই বুঝতে পারছেন না। তাকে কোনোভাবেই রাজেন্দ্র কলেজে রাখা যাবে না। এতে কলেজের শিক্ষার পরিবেশ মারাত্মক বিঘ্নিত হবে।
২০১৩ সালের ২৩ জুন শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে ঢাকা বোর্ডের উপ-কলেজ পরিদর্শক পদে প্রেষণে যোগ দেন অদ্বৈত কুমার। এই যোগদানের পেছনে কলকাঠি নাড়েন শিক্ষামন্ত্রীর সাবেক একজন এপিএস ও তৎকালীন একজন যুগ্ম-সচিব। ২০১৭ সালে বোর্ডের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের পদ বাগান অদ্বৈত।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
শেষের পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close