পরবর্তী সংবাদ
বাজেট-উত্তর সংবাদ সম্মেলনবিড়িশ্রমিক ফেডারেশনের ৭ দফা দাবিযাযাদি রিপোর্ট শ্রমিকদের মুজুরি বৃদ্ধি, স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বিড়িশিল্পকে কুটিরশিল্প ঘোষণাসহ সাতদফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ বিড়িশ্রমিক ফেডারেশন। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান সংগঠনের শীর্ষস্থানীয় নেতারা।
সংগঠনের সভাপতি আমিন উদ্দিন বিএসসি বলেন, 'প্রস্ত্মাবিত ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেটে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ফিল্টার বিড়িতে ২৬ শতাংশ শুল্ক বাড়িয়েছেন। অথচ বিড়িশিল্প মালিকদের সঙ্গে গত ২০ মে এক বৈঠকে বলেছিলেন তিনি বিড়ির ওপর কোনো ধরনের শুল্ক আরোপ করবেন না।'
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সাত দফা দাবি তিনি তুলে ধরেন। দাবিসমূহ হলো: ১. বিড়িশ্রমিকদের প্রতি বাজার মজুরি ১০০ টাকা করতে হবে। ২. ভারতের ন্যায় শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা নিতে হবে। ৩. ভারতের ন্যায় প্রতি হাজার শলাকার ওপর ১৪ টাকা ট্যাক্স নির্ধারণ করতে হবে। ৪. বিড়িশিল্পকে কুটিরশিল্প ঘোষণা করতে হবে। ৫. ২০ লক্ষ শলাকার নিচে যেসব ফ্যাক্টরি বিড়ি উৎপাদন করে তাদের ট্যাক্স মুক্ত রাখতে হবে। ৬. বিড়িশিল্প বন্ধের আগেই সরকার, বিড়ি মালিক ও শ্রমিক প্রতিনিধিদের এখন থেকে শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের পরিকল্পনা গ্রহণে পদক্ষেপ নিতে হবে। ৭. সিগারেটের মতো বিড়িশিল্পকেও ২০৪০ সাল পর্যন্ত্ম রাখতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এমকে বাঙ্গালী, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক হারিক হোসেন এবং রংপুর বিভাগ তামাক চাষি সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মাসুম ফকির প্রমুখ।
 
পরবর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close