দেশে গত ৪৬ বছরেও ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়নি : সিপিবি সভাপতিযাযাদি রিপোর্ট সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, পাকিস্তান আমল থেকেই বাংলাদেশের মানুষ অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে সংগ্রাম করছে। নিজের ভোট নিজে প্রয়োগ করার পরিস্থিতি নিশ্চিত করার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশে গত ৪৬ বছরে মানুষের ভোটাধিকারের নিশ্চয়তার বিধান করা সম্ভব হয়নি। তিনি বর্তমান আসনভিত্তিক সংসদ সদস্য নির্বাচনের পরিবর্তে ভোটের আনুপাতিক হারে প্রতিনিধি নির্বাচনের বিধান চালু করার দাবি জানান।
বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নির্বাচন ব্যবস্থার আমূল সংস্কারের দাবিতে সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা আহূত দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশের কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে সেলিম একথা বলেন।
সেলিম আরও বলেন, নির্বাচনে জামানতের পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়ে দরিদ্র কিন্তু সৎ ও যোগ্য প্রার্থীদের নির্বাচনে অংশগ্রহণকে দুঃসাধ্য করে তোলার অপচেষ্টা সহ্য করা হবে না। তিনি রাজনৈতিক দলসমূহের নিবন্ধনের অগণতান্ত্রিক ও অসাংবিধানিক পদ্ধতি বাতিলের দাবি জানান।
সেলিম বলেন, মূলত দুটি সামরিক শাসনের আমলে নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করা হয়েছিল। দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের উপর জনগণের আস্থা নিঃশেষিত হয়ে গিয়েছিল। স্বৈরাচারী এরশাদ সরকারবিরোধী গণআন্দোলনের জয়ের মধ্য দিয়ে প্রাপ্ত ব্যবস্থায় নির্বাচন করা গেলে ভোটাধিকার প্রয়োগের নিশ্চয়তা এখনও নিশ্চিত হয়নি।
তিনি বলেন, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড মানে আওয়ামী লীগ-বিএনপির জন্য নির্বাচনে সমান সুযোগ নয়। নির্বাচনে ছোট-বড় সব দলের জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করা না গেলে তাকে 'লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড' বলা যাবে না। নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগের পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। স্বাধীন ও আর্থিক ক্ষমতাসম্পন্ন কার্যকরী নির্বাচন কমিশন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য নির্বাচনে সন্ত্রাস, পেশিশক্তি, টাকার খেলা, সামপ্রদায়িকতা, দলীয়করণ ও প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ বন্ধ করতে হবে।
ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকম-লীর সদস্য অধ্যাপক আব্দুস সাত্তারের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আকবর খান, বাসদের কেন্দ্রীয় সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয় জুনায়েদ সাকি, সিপিবির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের (মাকর্সবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা আ ক ম জহিরুল ইসলাম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক। সভা পরিচালনা করেন বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহেদুল হক মিলু।
সমাবেশ শেষে একটি মিছিল শহরের বিভিন্ন পথ প্রদক্ষিণ করে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
শেষের পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close