কালুখালী সিংড়ায় দুজনকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যাআখাউড়া বিরলে দুই লাশ উদ্ধারস্বদেশ ডেস্ক নাটোরের সিংড়া ও রাজবাড়ীর কালুখালীতে গৃহবধূসহ দুইজনকে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। অন্যদিকে পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া এবং দিনাজপুরের বিরলে দুই লাশ উদ্ধার করেছে। প্রতিনিধি এবং সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর :
নাটোর : নাটোরের সিংড়ায় মলি খাতুন নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ করেছে স্বজনরা। বুধবার উপজেলার বলিয়াবাড়ি এলাকায় শ্বশুর ফজলুর রহমানের বাড়ি থেকে মলি খাতুনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত মলি খাতুন উপজেলার কালিনগর গ্রামের মকলেসুর রহমানের মেয়ে ও একই উপজেলার বলিয়াবাড়ি গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে প্রবাসী আলমগীর হোসেনের স্ত্রী। ঘটনার পর থেকে নিহত মলি বেগমের শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদ পলাতক রয়েছে। নিহত মলি বেগমের বাবা মকলেসুর রহমান জানান, প্রায় ছয় বছর আগে উপজেলার বলিয়াবাড়ি গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে আলমগীর হোসেনের সঙ্গে তার মেয়ে মলি খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মলির স্বামী আলমগীর হোসেন সিঙ্গাপুরে চাকরি নিয়ে চলে যান। নিঃসন্তান মলি খাতুন তার শ্বশুরালয়ে শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদের সঙ্গে বসবাস করে আসছিল। মঙ্গলবার রাতে প্রতিদিনের মতো তার শাশুড়ির সঙ্গে ঘুমাতে যায়। রাতের কোনো একসময় শ্বশুর বাড়ির লোকজন তার মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। তবে হত্যাকা-ের কারণ জানাতে পারেননি তিনি। প্রতিবেশী জিলুর রহমান ও বাতেন মিয়া জানান, রাত ১টার দিকে মলির মৃত্যু সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে তাদের বলা হয় গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে মলি খাতুন আত্মহত্যা করেছে। বুধবার সকালে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে মলির শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদ মৃতদেহ রেখে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লা আল মামুন জানান, প্রাথমিক সুরতহালে মৃতদেহের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বিরল (দিনাজপুর) : বিরলে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলার ফরক্কাবাদ ইউনিয়নের নলদীঘি গ্রামের কৃষক বুধবার সকাল আনুমানিক ৯টায় শেকপাড়া গভীর নলকূপের পাশের ধান ক্ষেতে সার প্রয়োগ করতে আসে। জমিতে সার প্রয়োগ করার সময় সেখানে ফাঁকা জায়গায় অজ্ঞাতনামা এক যুবকের মরদেহ দেখতে পায়।
পাংশা (রাজবাড়ী) : রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার শাওরাইর ইউনিয়নের দক্ষিণ কুমরিরাজ গ্রামে মোতালেব সরদার (৫৫) নামে এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৩০ জনের নামে কালুখালী থানায় একটি মামলা হয়েছে। মোতালেব সরদার ওই গ্রামের মৃত সামেদ সরদারের ছেলে। সোমবার পাশের গ্রামের বিল্লাল মোল্লার সাইকেলে চড়ে যাচ্ছিলেন মোতালেব সরদার। এ সময় একই গ্রামের জামিরুল সরদারের ছেলে মিজানের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ নিয়ে সেখানে দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে আবু সায়েমের নেতৃত্বে ৩০/৪০ জনের একটি দল মোতালেব সরদারকে কুপিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা তাকে প্রথমে পাংশা হাসপাতাল এবং পরে অবস্থার অবনতি হলে ফরিদপুরে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নেয়া হলে মঙ্গলবার বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব সরদার মারা যান। এ ঘটনায় নিহত মোতালেব সরদারের ভাই আবু কালাম সরদার বাদী হয়ে ৩০ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ঢাকা-সিলেট পথে চলাচলকারী সুরমা মেইল ট্রেন থেকে আনুমানিক ৬০ বছর বয়সী এক মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে আখাউড়া রেলওয়ে থানা পুলিশ। বুধবার ভোরে ট্রেনটি আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতিকালে লাশটি উদ্ধার করা হয়। আখাউড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুস সাত্তার জানান, ওই নারীর স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin