অজিদের নিয়ে আশাবাদী ক্লার্কক্রীড়া ডেস্ক কয়েক সপ্তাহ আগেই বাংলাদেশে স্পিন যন্ত্রণায় ভালোই ভুগেছে অস্ট্রেলিয়া। ওই সফরে টেস্ট সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করতে পারলেও উপমহাদেশের স্পিন-সহায়ক উইকেটে অজি ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা স্পষ্টভাবেই ফুটে উঠেছে। তাই এখন দেশটির ক্রিকেটজুড়ে আলোচনার মুখ্য বিষয়- স্পিনে অসহায় স্মিথ-ওয়ার্নাররা ভারতের মাটিতে নিজেদের কতটা মেলে ধরতে পারবেন! তবে নিজের দলের ভালো কিছু করার আশাবাদই ব্যক্ত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। তার মতে, ভারতের উইকেটে স্পিন কোনো চিন্তার নয় অস্ট্রেলিয়ার জন্য।
ভারত সফরে কোনো টেস্ট খেলছে না অস্ট্রেলিয়া। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে এবং তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজেই সীমাবদ্ধ সফরটি। আর এই কারণেই উপমহাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠেয় এই ম্যাচগুলোতে দলের বিষয়ে বেশ আশাবাদী ক্লার্ক, 'টেস্ট এবং ওয়ানডের মধ্যে অনেক ফারাক রয়েছে। সীমিত ওভারের ম্যাচে আপনি ফ্লাট উইকেটই পাবেন। ওয়ানডে ম্যাচগুলোতে বিশ্বের শতকরা ৯৫ ভাগ উইকেটের আচরণ প্রায় একই। এখানে আপনাকে তৃতীয়, চতুর্থ এবং পঞ্চম দিনের কথা ভাবতে হবে না।'
২০০৩ সালে ভারতে ত্রিদেশীয় সিরিজে খেলেছিলেন ক্লার্ক। ওই সময় অন্যতম সেরা স্পিনার অনিল কুম্বলে-হরভজন সিংকে মোকাবেলা করেই আসরটির ফাইনালে কলকাতায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে সহজ জয় তুলে নিয়েছিল তার দল। তাই ক্লার্কের বিশ্বাস, চেন্নাইয়ে প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নিতে পারলে সফরের বাকি সময়টা ভালোভাবেই কাটিয়ে দিতে পারবে অস্ট্রেলিয়া, 'বিগত সময়ে আমরা হরভজন এবং কুম্বলের মতো দক্ষ বোলারদের মোকাবেলা করেছি। অবশ্য টেস্টে এখন এটা আরও কঠিন হয়েছে। অশ্বিন এবং জাদেজাও টেস্টে ভালো করছে। কিন্তু ভারতের এখনকার উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের বেশি সমস্যা হওয়ার কথা নয়। যদি তারা প্রথম ম্যাচ জিতে নিতে পারে, তবে স্মিথরা সঠিকভাবেই এগিয়ে যেতে পারবে।'
এদিকে, সিরিজের প্রথম তিন ওয়ানডের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে মূল স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন এবং রবিন্দ্র জাদেজাকে দলে রাখেনি ভারত। তাতেই দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়েছেন ক্লার্ক।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin