পূর্ববর্তী সংবাদ
অপুর নতুন লড়াই শুরম্নএবার আমি ক্যারিয়ারে মনোযোগী হতে চাই। আমার ভালো কাজের মাধ্যমে ব্যক্তিজীবনটাকে সমৃদ্ধ করতে চাই। আমি বিশ্বাস করি, রাতের পর দিন আসে। আমার জীবনেও রাত এসেছিল। এখন আবার আলোর দিকে হাঁটছি। অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকের ভালোবাসা আর একমাত্র ছেলেকে নিয়ে ভালো থাকতে চাই। সবাই আমাকে আশীর্বাদ করবেন...বিনোদন রিপোর্ট অপু বিশ্বাসদাম্পত্য কলহ ভুলে ক্যারিয়ারে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই শুরম্ন করেছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। এবার চলচ্চিত্রে মনোযোগী হতে চাইছেন তিনি। দুই দুটি ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে প্রত্যাবর্তন করছেন অপু। এগুলো হচ্ছে, দেবাশীষ বিশ্বাসের 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু' ও রফিক শিকদারের 'ওপারে চন্দ্রাবতী'। এ ছাড়া আরও বেশ কিছু ছবির চিত্রনাট্য হাতে পেয়েছেন তিনি। বেছে বেছে ভালো লাগলে তবেই সেগুলোতে অভিনয় করবেন বলে জানিয়েছেন অপু বিশ্বাস।
ক্যারিয়ার প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস জানান, 'এবার আমি ক্যারিয়ারে মনোযোগী হতে চাই। আমার ভালো কাজের মাধ্যমে ব্যক্তিজীবনটাকে সমৃদ্ধ করতে চাই। আমি বিশ্বাস করি, রাতের পর দিন আসে। আমার জীবনেও রাত এসেছিল। এখন আবার আলোর দিকে হাঁটছি। অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকের ভালোবাসা আর একমাত্র ছেলেকে নিয়ে ভালো থাকতে চাই। সবাই আমাকে আশির্বাদ করবেন।'
২০০১ সালে মুক্তি পেয়েছিল 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ' ছবিটি। মুক্তির পর বেশ সাফল্য পেয়েছিল ছবিটি। এর পরের বছরই কলকাতায় ছবিটির রিমেক করেন হরনাথ চক্রবর্তী। প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণা অভিনীত ছবিটি সেখানেও ব্যবসাসফল হয়। প্রায় ১৭ বছর পর রিয়াজ-শাবনূর জুটি অভিনীত 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ' ছবির সিকু্যয়াল 'শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-টু' নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে অপুর বিপরীতে অভিনয় করবেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী। গত বৃহস্পতিবার বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন তারা।
এদিকে, বিপরীতে 'ওপারে চন্দ্রাবতী' ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন অপু। এতে তার নায়ক হবেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। এ ছবিতে পরীমনির জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন অপু। ছবিটির পরিচালনা করবেন রফিক সিকদার।
এ প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, 'হঁ্যা ছবিটি আমি করছি। যদিও একটু সময় নিতে চাচ্ছিলাম কিন্তু পরিচালক যেহেতু বারবার বললেন সেহেতু আমি চুক্তি স্বাক্ষর করেছি। ছবিটির গল্প বেশ চমৎকার। আশা করছি, ভালো কিছু ঘটতে যাচ্ছে।'
এদিকে, মা হওয়ার পর অপু বিশ্বাস প্রথমে 'সবুজ ছাড়া আবাসন প্রকল্প'-এর শুভেচ্ছাদূত হন। এ ছাড়া চিত্রনায়ক রিয়াজের সঙ্গে একাধিক বিজ্ঞাপনচিত্রেও মডেল হন তিনি। এরপর চায়না-বাংলাদেশের একটি কোম্পানি 'লিংকাস' ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হন অপু বিশ্বাস। এরপর নিজেকে পুরোদমে ক্যামেরার সামনে ফেরাতে প্রস্তুতি নিয়ে কাজ শুরম্ন করেন তিনি। তারই ধারাবাহিকতায় চ্যানেল আইয়ের প্রযোজনায় 'কানাগলি' ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন। এ ছাড়া বদিউল আলম খোকনের 'কাঙ্গাল' ছবিতেও কাজ করার কথা ছিল তার। কিন্তু স্বামী ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান চটে যাওয়ার কারণে সেই ছবি থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।
ফের অপুর ক্যারিয়ার নিয়ে মনোযোগী অনেকেই অপুর প্রশংসা করছেন। কেউ কেউ তো বলছেন, সব কিছু ভুলে গিয়ে নিজের মতো করে কাজ করাটা হবে অপু বিশ্বাসের বুদ্ধিমানের মতো কাজ। কেননা বাংলাদেশে শাকিব খানের মতো অপু বিশ্বাসেরও আছে বেশ জনপ্রিয়তা।
 
পূর্ববর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close