মির্জাগঞ্জে এক গৃহবধূর হাতের কব্জি কর্তনপটুয়াখালী প্রতিনিধি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলায় জমিসংক্রান্ত্ম বিরোধের জের ধরে আসমা বেগম নামে এক গৃহবধূর হাতের কব্জি কেটে ফেলা হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার গোলখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আসমা বেগমকে প্রথমে মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্স ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একই গ্রামের আজিজ সিকদার ও তার ছেলে আলামিনকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধূ আসমা বেগমের বিচ্ছিন্ন হাতের কব্জি উদ্ধার করেছে পুলিশ।
জানা যায়, ওই গ্রামের সোহাগ ফরাজীর স্ত্রীর আসমা বেগম এক সপ্তাহ আগে বাড়িসংলগ্ন একটি জমি থেকে মাটি কাটতে গেলে পাশের বাড়ির আজিজ সিকদারের সঙ্গে ঝগড়া হয়। এ ঘটনার জের ধরে সোহাগ ফরাজীর অনুপস্থিতে সোমবার রাতে আজিজ সিকদার ও তার দুই ছেলে কবির ও আলামিন গৃহবধূ আসমা বেগমের ঘরে প্রবেশ করে তার ডান হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করে পালিয়ে যায়। বাড়ির লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় আসমা বেগমকে প্রথমে মির্জাগঞ্জ ও পরে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।
মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনির হোসেন জানান, এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ থানায় গৃহবধূর শাশুড়ি হোসনেয়ারা বেগম বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত ওই দু'জনসহ ৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
স্বদেশ -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close