দুর্বল অবস্থায় ওরা সাফারি পার্কেযাযাদি রিপোর্ট যশোর থেকে উদ্ধার হওয়া সিংহ ও চিতার শাবকযশোর থেকে উদ্ধার হওয়া সিংহ ও চিতার চারটি শাবক দীর্ঘ যাত্রার ধকলে এখন বেশ দুর্বল। দুর্বলতা কাটাতে গাজীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের প্রাণী হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইন সেলে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। চিতার শাবকগুলোকে ফিডারে করে দুধ এবং সিংহের শাবকদের মাংস খেতে দেয়া হচ্ছে। সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত্ম চিতা-সিংহের শাবকদের এখানে রাখা হবে।
সোমবার দুপুরে যশোরের চাঁচড়া এলাকায় একটি প্রাডো গাড়ি থেকে চিতা ও সিংহের চারটি শাবকসহ কামরম্নজ্জামান ওরফে বাবু (৩০) ও রানা মিয়া (২৮) নামের দুই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়। রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে শাবক চারটি নেয়া হয়। গাড়ির ভেতর দুটি কাঠের বাক্সে করে চালানটি সীমান্ত্মবর্তী শার্শা উপজেলার এক ব্যক্তির বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল বলে জানান যশোরের পুলিশ সুপার (এসপি) আনিসুর রহমান।
যে গাড়ি থেকে বাঘ-সিংহের শাবকগুলো উদ্ধার করা হয়েছে, সেটির মালিক ঢাকার বনানী এলাকার মেসার্স স্টার গোল্ড ইন্টারন্যাশনালের মো. খাজা মঈনুদ্দিন। প্রতিষ্ঠানটি বনানীর কাকলী এলাকার নিউ এয়ারপোর্ট সড়কের ৯২/২ নম্বর বাড়ির হাজি টাওয়ারের পঞ্চম তলায় অবস্থিত। গাড়ির কাগজপত্রে দুটি মুঠোফোন নম্বর দেয়া রয়েছে। ওই নম্বর দুটির একটিতে ফোন দিলে একজন নারী বলেন, 'প্রাডো মডেলের আমাদের কোনো গাড়ি নেই। আপনার নম্বর তুলতে হয়তো ভুল হয়েছে।' দ্বিতীয় নম্বরটিতে ফোন দিলে একজন পুরম্নষ ফোন ধরে একই কথা বলেন।
যশোরে চিতা ও সিংহের শাবকদের বনবিভাগের কাছে হস্ত্মান্ত্মর করা হয়েছে। সেখান থেকে মঙ্গলবার ভোর সোয়া চারটার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে আনা হয়। নতুন সিংহ শাবকসহ সাফারি পার্কে সিংহের সংখ্যা এখন ২১-এ দাঁড়াল। তবে এখানে কোনো চিতাবাঘ নেই।
পার্কে আনার পর চারটি শাবকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়। এ কথা জানিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের সহকারী ভেটেরিনারি সার্জন নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দুটি চিতার শাবকই ছেলে। একটির ওজন দুই কেজি, আরেকটি চিতা শাবকের ওজন এক কেজি ৬০০ গ্রাম। তাদের আনুমানিক বয়স দেড় মাস। সিংহের শাবক দুটির একটি ছেলে ও একটি মেয়ে। প্রতিটি সিংহ শাবকের ওজন ছয় কেজি। ধারণা করা হচ্ছে, তাদের আনুমানিক বয়স আড়াই মাসের মতো। এগুলোকে মাংস ছোট ছোট টুকরো করে খেতে দেয়া হচ্ছে।
শারীরিক দুর্বলতার কারণে চিতা ও সিংহের শাবকগুলোর স্বাস্থ্য পরীক্ষা চলছে জানিয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, বেশ টানাহেঁচড়া করা হয়েছে। ঢাকা থেকে যশোর হয়ে আবার গাজীপুরে আনা-নেয়া করানোর কারণে শাবকগুলো বেশ দুর্বল ও অসুস্থ। এ জন্য শারীরিক অবস্থা বুঝে খাবার দেয়া হচ্ছে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close