কুমিলস্নার আদালতে খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুরকুমিলস্না প্রতিনিধি কুমিলস্নায় যাত্রীবাহী বাসে দুর্বৃত্তদের পেট্রলবোমা হামলায় আটজন যাত্রী নিহতের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অন্ত্মর্বর্তীকালীন জামিন নাকচ করেছে আদালত। সোমবার কুমিলস্না জেলা ও দায়রা জজ আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা ওই জামিন আবেদন করেন। জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক জেসমিন আরা বেগম। মামলার নথি পাওয়া সাপেক্ষে আগামী ২৩ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছে আদালত। খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী নাজমুস সা'দত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে গত ১০ এপ্রিল ঢাকা থেকে আসা খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউলস্নাহ মিয়ার উপস্থিতিতে আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার জামিনের আবেদন করেছিলেন। শুনানি শেষে ৫ নম্বর আমলি আদালতের বিচারক ও সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোস্ত্মাইন বিলস্নাহ্‌ জামিন আবেদন নাকচ করেছিলেন।
এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাজী নাজমুস সা'দত জানান, নিম্ন আদালতে জামিন না পেয়ে তারা জেলা জজ আদালতে জামিন আবেদন করেছেন, আদালত বিধিমোতাবেক ওই মামলার নথি তলব করেছে এবং আগামী ২৩ এপ্রিল জামিনের আবেদন শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করেছে।
উলেস্নখ্য, ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রম্নয়ারি ভোর রাতে ২০-দলীয় জোটের টানা অবরোধের সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিলস্নার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি নৈশকোচে দুর্বৃত্তরা পেট্রলবোমা ছুঁড়ে মারে। এতে ওই বাসের আটজন যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরম্নজ্জামান বাদী হয়ে ৭৭ জনের বিরম্নদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় খালেদা জিয়াসহ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় ছয়জন নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়। ৭৭ জন আসামির মধ্যে তিনজন মারা যান, পাঁচজনকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়। পরে মামলার অধিকতর তদন্ত্ম শেষে গত বছরের ১৬ নভেম্বর কুমিলস্না আদালতে তদন্ত্মকারী কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন চার্জশিট দাখিল করেন।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
শেষের পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close