বাংলাদেশে ধীরে ধীরে এগোচ্ছে টেকনোটেকনো চেষ্টা করছে বাংলাদেশের মার্কেটে ভালো করার। এজন্য তারা নানারকম মার্কেটিং পস্ন্যান করছে। এর মধ্যে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যতম। বড় শহরগুলোতে বৈচিত্র্যময় ইভেন্ট করারও পরিকল্পনা রয়েছে এই স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের। বিশ্বের অন্যতম স্মার্টফোন ব্র্যান্ড টেকনো মোবাইল বাংলাদেশের বাজারে, ক্যামন সিরিজের পরবর্তী স্মার্টফোন নিয়ে আসছে।পার্বনী দাস বিশ্বের অন্যতম স্মার্টফোন ব্র্যান্ড টেকনো মোবাইল বাংলাদেশের বাজারে, ক্যামন সিরিজের পরবর্তী স্মার্টফোন নিয়ে আসছে। বর্তমানে বিশ্বের ৫৮টিরও বেশি দেশে অবস্থান করছে টেকনো মোবাইল এবং গ্রাহক চাহিদা অনুযায়ী ক্যামন সিরিজের স্মার্টফোনে ক্যামেরা ফিচারের ওপর আলাদা করে গুরম্নত্ব দিয়ে থাকে।
গত জানুয়ারি মাসে, ইনফিনিটি ডিসপেস্ন্ল (১৮:৯) এবং লো লাইট সেলফি ক্যামেরা ফিচার নিয়ে সর্বশেষ ক্যামন সিরিজের ক্যামন আই স্মার্টফোন বাজারজাত করেছিল টেকনো মোবাইল বাংলাদেশ লি.। প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা থাকায় আশানুরূপ ফলাফল নিয়ে বাজারে আসতে সক্ষম হয় ক্যামন আই।
টেকনো মোবাইলের ক্যামন সিরিজের পরবর্তী স্মার্টফোন হচ্ছে ক্যামন এক্স প্রো, যা গ্রাহক চাহিদার পাশাপাশি ক্যামন সিরিজের সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখবে বলে আশা করছে টেকনো মোবাইল। তথ্য অনুযায়ী, ২৪ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরার সঙ্গে ১৬ মেগা পিক্সেলের ব্যাক ক্যামেরায় সমন্বয়ে, ৬.০ ইঞ্চি ফুল এইচডি ইনফিনিটি ডিসপেস্ন থাকছে ক্যামন এক্স প্রো স্মার্টফোনটিতে।
ক্যামন এক্স প্রো স্মার্টফোনে, অক্টাকোর প্রসেসরের সঙ্গে, ০৪ গিগাবাইট র?্যাম এবং ৬৪ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিশেষ মাধ্যমে জানা যায়, ডিভাইসটি দুটি সংস্করণে আসবে, ক্যামন এক্স এবং ক্যামন এক্স প্রো। পার্থক্য কী হতে পারে তা নির্দিষ্ট করে বলা না গেলেও, অনুমেয় যে, ক্যামন এক্স প্রো র?্যাম এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ-এ ক্যামন এক্সের চেয়ে এগিয়ে থাকবে।
ডিভাইসটি চলতি বছরের ৯ মে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজারজাত শুরম্ন করবে প্রতিষ্ঠানটি এবং ইতোমধ্যে, টেকনো মোবাইলের নিজস্ব ব্র্যান্ড আউটলেটগুলোতে সীমিত সংখ্যক প্রি-অর্ডারের জন্য ঘোষণা দিয়েছে যা গত ৩ মে, ২০১৮ তারিখ থেকে শুরম্ন হয়। প্রি-অর্ডারের জন্য আপনার কাছের টেকনো মোবাইলের ব্র্যান্ড আউটলেটে ভিজিট করতে পারেন।
ক্রেতাদের জন্য স্মার্টফোনে সর্বোত্তম ব্যবহার অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে, গত জুলাই ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরম্ন করে টেকনো। মোবাইল হ্যান্ডসেটের কোয়ালিটি নিয়ে গ্রাহকদের চিন্ত্মামুক্ত রাখতে, টেকনো মোবাইল তাদের প্রতিটি হ্যান্ডসেটে ১৩ মাসের ওয়ারেন্টির পাশাপাশি বিক্রয়োত্তর ১০০ দিন পর্যন্ত্ম রিপেস্নসমেন্ট গ্যারান্টি দিচ্ছে; যা নিশ্চিত করে থাকে ট্রানশান হোল্ডিংসের সার্ভিসিং ব্র্যান্ড কার্লকেয়ার। টেকনো চেষ্টা করছে বাংলাদেশের মার্কেটে ভালো করার। এজন্য তারা নানারকম মার্কেটিং পস্ন্যান করছে। এর মধ্যে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যতম। বড় শহরগুলোতে বৈচিত্র্যময় ইভেন্ট করারও পরিকল্পনা রয়েছে এই স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close