প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকে স্বাগত জানালো যুক্তরাজ্যযাযাদি রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে সৃষ্ট সুযোগকে কাজে লাগাতে খোলা মন নিয়ে আলোচনার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। গত কয়েক দিনের বাংলাদেশে রাজনৈতিক ঘটনাপ্রবাহের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার এক সংবাদ বিবৃতিতে এই অবস্থানের কথা জানায় দেশটি।
একই সঙ্গে ঢাকায় সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির ঘটনা নির্বাচনকালীন অন্তর্বর্তী প্রশাসনের বিষয়ে ঐকমত্য সৃষ্টির প্রচেষ্টায় কোনো বাধা সৃষ্টি করবে না বলেও আশা করা হয়েছে বিবৃতিতে।
শুক্রবার জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়ে তাতে অংশ নিতে বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের নাম আহ্বান করেন।
বিবৃতিতে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন বলেন, এর (ভাষণের) মধ্যদিয়ে তাদের মনে হয়েছে 'সংলাপের দরজা খোলা রয়েছে'।
তিনি বলেন, 'এই সুযোগ অাঁকড়ে ধরতে, সুদৃঢ় বিশ্বাস নিয়ে আলোচনা করতে, নমনীয়তা দেখাতে এবং সবকিছুর আগে দেশের স্বার্থকে সমুন্নত রাখতে দলগুলোর প্রতি আমরা আহ্বান জানাই।'
কয়েকজন সাংবাদিকের অনুরোধে এই বিবৃতি দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে এতে বলা হয়, অন্তর্বর্তী প্রশাসনের ধরন বা গঠন কী হওয়া উচিত, তা নিয়ে নির্দেশনা দেয়া যুক্তরাজ্যের কাজ নয়। যা দরকার তা হলো- নির্বাচন প্রক্রিয়ার নিরপেক্ষতা এবং বাংলাদেশের জনগণ যাতে নিজেদের ইচ্ছানুযায়ী সরকার নির্বাচন করতে পারে, তা নিশ্চিত করা।
ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, 'যুক্তরাজ্য বহু আগেই পরিষ্কার করেছে যে, টেকসই সমঝোতার জন্য অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেখতে চায় দেশটি, যার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটবে। এরকম একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির জন্য আমরা সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যকার সংলাপকে উৎসাহিত করেছি।'
রোববার ঢাকায় সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়টি সম্পর্কে অবগত থাকার কথা জানিয়ে তিনি আশা করেন, 'এটি অন্তর্বর্তী প্রশাসনের বিষয়ে ঐকমত্য অর্জনের প্রচেষ্টাকে বাধাগ্রস্ত করবে না বা সংসদে বা গণমাধ্যমজুড়ে শাসনতান্ত্রিক রাজনৈতিক কর্মকা-কেও বাধা দেবে না।'
বিবৃতিতে বলা হয়, সবপক্ষই সংযমের সঙ্গে কাজ করবে এবং সহিংসতামূলক কাজকে নিরুৎসাহিত করতে সম্ভাব্য সবকিছুই করবে বলে যুক্তরাজ্য আশা করে।
নির্বাচনকালীন সরকারের ধরন নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এবং প্রধান বিরোধী দল বিএনপির মধ্যে ঐকমত্য না হওয়ায় রাজনৈতিক অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এরমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের দুই দিনের মাথায় রোববার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই তারা নির্বাচনে যাবেন।
তবে এ বিষয়ে সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাবেন তিনি।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close