ছুটি না দেয়ায় মালিক-শ্রমিক সংঘর্ষ: ১০ কারখানা ছুটিসাভার প্রতিনিধি রানা প্লাজার ধসে নিহত শ্রমিকদের শোক জানাতে কারখানা ছুটি ঘোষণা না করার জেরে সাভারে মালিক-শ্রমিক সংঘর্ষের পর অন্তত ১০টি কারখানা ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।
রোববার সাভারের বিরুলিয়া রোডসহ এর আশপাশের এলাকায় এ ঘটনায় অন্তত ১০ শ্রমিক আহত হয়েছে। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
শিল্প পুলিশ-১ সাভার জোনের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মুকুল মোহন কু-ু জানান, রানা প্লাজা ধসে নিহত শ্রমিকদের প্রতি শোক জানানোর জন্য সকালে সাভার-বিরুলিয়ার রোডে পূর্ব রাজাশন এলাকায় ভিশন গার্মেন্ট শ্রমিকরা কারখানা কর্তৃপক্ষের কাছে ছুটি দাবি করে।
মালিকপক্ষ ছুটি না দেয়ায় শ্রমিকরা কারখানায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ভাংচুর চালায়। পরে শ্রমিকরা কারখানা থেকে বের হয়ে পাশের হাইপয়েড়, আজিম গ্রুপ, পাকিজা গ্রুপসহ বিভিন্ন স্থানে অন্তত ১০টি গার্মেন্টসে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে।
তিনি বলেন, এক পর্যায়ে শ্রমিকদের সঙ্গে মালিকপক্ষের সংঘর্ষ হয়। পরে বিরুলিয়া রোড ও এর আশপাশের অন্তত ১০টি ছোট-বড় কারখানা একদিনের ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।
এদিকে শোক পালনের জন্য সাভারের সব পোশাক কারখানা ছুটির দাবিতে বেলা সাড়ে ১২টার রানা প্লাজার সামনে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় শ্রমিকরা।
পরে পুলিশ তাদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।
গামেন্র্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক খায়রুল মান্টু বলেন, কারখানা ছুটি না দেয়ায় শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। পরে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।
তবে করেন শ্রমিকরা কোনো ভাংচুর করেনি বলে দাবি করেন তিনি।
এ বিষয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে কেউ কথা বলতে রাজি হননি।
২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভার বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন আটতলা রানা প্লাজা ধসে নিহত হন এক হাজার ১৩৫ জন; প্রাণে বেঁচে গেলেও পঙ্গুত্ব বরণ করতে হয় আরো হাজারখানেক গার্মেন্ট শ্রমিককে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
শেষের পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin