পদ্মা সেতুর ৩৩ ভাগ কাজ শেষ : সেতুমন্ত্রীযাযাদি রিপোর্ট পদ্মা সেতুর ৩৩ ভাগ নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে বলে জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ইতোমধ্যে নয়টি পাইলিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। সেতুটির কাজ যথাসময়ে শেষ হবে বলেও তিনি জানান। রোববার সংসদের প্রশ্নোত্তরে অংশ নিয়ে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
এর আগে বিকাল ৫টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দশম সংসদের দশম অধিবেশনের প্রথম দিনের বৈঠক শুরু হয়।
আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত আসনের সদস্য নাভানা আক্তারের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, পদ্মা সেতুর সংযোগ সড়কগুলো চার লেন করার কাজ আগামী মাসে শুরু হবে। মাওয়া থেকে পোস্তগোলা-বাবুবাজার, জাজিরা থেকে ভাঙ্গা মোড় পর্যন্ত চার লেন প্রকল্পের কাজ সেনাবাহিনীকে দেয়া হয়েছে।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নিয়ে আমাদের অতিকথন থেকে বিরত থাকতে বলেছেন। দুই মাস পরপর আপডেট দিতে বলেছেন। তাই কথা কম বলতে চাই। কাজ বেশি করতে চাই। সামগ্রিক কাজের ৩৩ ভাগ অগ্রগতি হয়েছে। এর চেয়ে বেশি কথা না বলাই ভালো।'
তরিকত ফেডারেশনের নজিবুল বশর মাইজভান্ডারির এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেনের কাজ শেষ পর্যায়ে। ফাইনাল লেয়ারের কাজ চলছে এবং বিউটিফিকেশনের কাজও চলছে। প্রথম লেয়ারের কাজ ১৯২ কিলোমিটার হয়ে গেছে। ফেনী ও কুমিল্লায় রেল ওভারপাস করা হয়ে গেছে। ফাইনাল লেয়ারের কাজ চলছে। দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে শেষ হবে।
এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রী জানিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রী মে মাসে ঢাকা-চট্টগ্রাম চার লেনের উদ্বোধন করবেন।
জাতীয় পার্টির সাংসদ সালমা ইসলামের এক প্রশ্নের জবাবে রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেন, বর্তমানে রেলওয়ের ৪ হাজার ৩৯১ দশমিক ৩৯ একর জমি অবৈধ দখলভুক্ত রয়েছে। এর মধ্যে পূর্বাঞ্চলে প্রায় ১ হাজার ৪ দশমিক ১২ একর এবং পশ্চিমাঞ্চলে ৩ হাজার ৩৮৭ দশমিক ২৭ একর রয়েছে। সরকারি, আধা সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান অবৈধভাবে দখল করেছে ৯২২ দশমিক ৩৪ একর। বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বা বিভিন্ন ব্যক্তির অবৈধ দখলে রয়েছে ৩ হাজার ৩৭৮ দশমিক ২২ একর। ধর্মীয়/শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অবৈধ দখলে আছে ৯০ দশমিক ৮৩ একর।
অধিবেশন শুরুর আগে বিকালে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৫ মে পর্যন্ত অধিবেশন চলবে। প্রতিদিন বিকাল পাঁচটায় অধিবেশন শুরু হবে।
বৈঠকে কমিটির সদস্য সংসদ নেতা শেখ হাসিনা, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ফজলে রাব্বী মিয়া, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, রাশেদ খান মেনন, আ স ম ফিরোজ, মঈন উদ্দীন খান বাদল ও আনিসুল হক অংশ নেন।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
শেষের পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close