স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএসের সেই আত্মীয় বরখাস্তসিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি 'স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএস আমার আত্মীয়... দেখে নেব' এভাবে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার ওসিকে হুমকি দেয়া সেই কনস্টেবল আলমগীর হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছেন জেলা পুলিশ কর্তৃপক্ষ।
বুধবার দুপুরে তাকে বরখাস্ত করা হয় বলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহিন আলম নিশ্চিত করেছেন।
সলঙ্গা থানার ওসি আবদুর রফিক জানান, সোমবার সন্ধ্যায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রায়গঞ্জ সার্কেল) আবদুর রউফ সলঙ্গা থানা পরিদর্শনে আসেন। তার গাড়ি থানাভবনে ঢোকার সময় দায়িত্বরত কনস্টেবল সবুজ সেটা লক্ষ করেনি।
তিনি জানান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে সম্মান প্রদর্শন না করায় গাড়ি থেকে নেমেই চালক (কনস্টেবল) আলমগীর চড়াও হয় সবুজের উপর। বিষয়টি চোখে পড়লে এর প্রতিবাদ করে আলমগীরকে বলেন, 'তুমি কনস্টেবল হয়ে অপর কনস্টেবলের উপর চড়াও হতে পারো না। এখানে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রয়েছেন, তিনি বিষয়টি দেখবেন।'
এ সময় কনস্টেবল আলমগীর হোসেন উত্তেজিত হয়ে ওসির কথার

পাল্টা জবাব দেন। এ অবস্থায় এএসআই মতিউর রহমান তাকে শান্ত করার জন্য বাইরে নিয়ে যান এবং ওসি অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে সঙ্গে নিয়ে নিজ কার্যালয়ে যান।
এর পরপরই গাড়িচালক আলমগীর হোসেন আবারও ধেয়ে এসে ওসির উপর চড়াও হন। তিনি গাড়ির ওপর দাঁড়িয়ে উচ্চস্বরে ওসিকে উদ্দেশ করে বলেন, 'স্যার আমাকে আপনি চিনেন না। আমি আইজির গাড়ি চালিয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএস আমার আত্মীয়। আপনাদের সবাইকে দেখে নেয়ার ক্ষমতা আমার আছে।'
এ বিষয়ে সলঙ্গা থানার ওসি জানান, 'আমি আগেও শুনেছি, কনস্টেবল আলমগীর সবার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। আজ আমার সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করল। এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করলে প্রাথমিক তদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।'
বিকালে তাকে সিরাজগঞ্জ পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin