পূর্ববর্তী সংবাদ
অস্ট্রেলিয়া সিরিজভেন্যু নিয়ে দুশ্চিন্তায় বিসিবিবিকেএসপি কিছুটা দূরে হবে। আমরা চেষ্টা করব তাদের সহজে নিয়ে যাওয়ার জন্য। আর সিলেটের কথাও আমরা তাদের (অস্ট্রেলিয়া নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল) জানিয়ে রাখব। যদিও সিলেটে গিয়ে খেলে এসে আবার দু'দিন পর ম্যাচ খেলতে নামতে হবে। বিষয়টা অস্ট্রেলিয়া নাও মেনে নিতে পারে -জালাল ইউনুসক্রীড়া প্রতিবেদক না, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজের দুই ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। প্রথম টেস্টের ভেন্যু মিরপুর শেরেবাংলা সংস্কার কাজের পর এখন পুরোপুরি তৈরি। দ্বিতীয় টেস্টের জন্য প্রস্তুত আছে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামও। এরপরও ভেন্যু নিয়ে দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)! আসলে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার দুশ্চিন্তার সবটাই টেস্ট সিরিজ শুরুর আগের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে। সেটা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে টানা বৃষ্টি। ফলে প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য ফতুল্লা, বিকেএসপি, সিলেট ভেন্যুর কোনোটাই এখন পর্যন্ত নিশ্চিত করতে পারেনি বিসিবি।
অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল আগামী ১৮ আগস্ট ঢাকায় পেঁৗছবে। তার আগে আগামী ১৫ আগস্ট ঢাকায় পেঁৗছবে অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল। কিন্তু দুই দিনের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার পর্যবেক্ষক দলকে অনুশীলন ম্যাচের ভেন্যু দেখাতে পারবে না বিসিবি, এটা অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গেছে। বাংলাদেশের ক্রিকেট অনেক দূর এগিয়ে গেলেও আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনের জন্য পর্যাপ্ত এবং উপযুক্ত ভেন্যু না থাকার বিষয়টি এখন বিসিবি কর্মকর্তারা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন।
অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সফর সূচির মধ্যে একমাত্র অনুশীলন ম্যাচটির ভেন্যু হিসেবে দেখানো হয়েছে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম। কিন্তু টানা বৃষ্টির ফলে ওই স্টেডিয়াম হয়ে পড়েছে পুরো খেলার অনুপযোগী। অথচ সেখানেই ২২ ও ২৩ আগস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা অস্ট্রেলিয়ার দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। কিছুদিন ধরেই বৃষ্টি আর সুয়্যারেজের পানিতে সয়লাব হয়ে আছে পুরো স্টেডিয়াম। মাঠের ভেতর এবং বাইরে ময়লা-দুর্গন্ধযুক্ত পানি জমে রয়েছে। স্টেডিয়ামের প্রবেশমুখেও জমে রয়েছে ময়লা পানি।
এ পরিস্থিতিতে ফতুল্লায় অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজন করা সম্ভব নয়। বিসিবির গ্রাউন্ডস কমিটির চেয়ারম্যান হানিফ ভুঁইয়া গত সপ্তাহ থেকেই বলে আসছেন এমন কথা। এই ফাঁকে বিকেএসপি এবং ফতুল্লা স্টেডিয়াম প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। তবে গত সপ্তাহে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছিলেন, টানা বৃষ্টি না হলে ফতুল্লায় ম্যাচটি আয়োজন করা সম্ভব। না হয়, তারা বিকেএসপিকেই বিকল্প হিসেবে চিন্তা করে রেখেছে।
বিসিবির এইসব পরিকল্পনা এবং প্রস্তুতি ভাসিয়ে দিয়েছে মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে গত শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টি। আবহাওয়া অধিদপ্তরের বক্তব্য অনুযায়ী এই বৃষ্টি চলবে আরও তিনদিন। সুতরাং ফতুল্লায় যে আর অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তুতি ম্যাচটি আয়োজন করা সম্ভব নয়, সেটা ইতোমধ্যেই স্পষ্ট হয়ে গেছে। অস্ট্রেলিয়ার পর্যবেক্ষক দলের ঢাকায় সফর এবং অনুশীলন ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে বিসিবি পরিচালক এবং মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস শনিবার সাংবাদিকদের জানান, 'যদি ফতুল্লায় খেলা আয়োজনা করা সম্ভব না হয়, তাহলে অপশন হচ্ছে বিকেএসপি ও সিলেট স্টেডিয়াম।'
যদিও বিকেএসপি কিংবা সিলেট স্টেডিয়ামে প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজন নিয়ে বিসিবির কর্মকর্তারাই সন্দিহান। তারপরও তিনি বলেন, 'যদিও বিকেএসপি কিছুটা দূরে হবে। আমরা চেষ্টা করব তাদের সহজে নিয়ে যাওয়ার জন্য। আর সিলেটের কথাও আমরা তাদের (অস্ট্রেলিয়া নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল) জানিয়ে রাখব। যদিও সিলেটে গিয়ে খেলে এসে আবার দু'দিন পর ম্যাচ খেলতে নামতে হবে। বিষয়টা অস্ট্রেলিয়া নাও মেনে নিতে পারে।'
মিরপুর শেরেবাংলার মূল ভেন্যুতে খেলা হওয়া সম্ভব কিনা জানতে চাইলে জবাবে জালাল ইউনুস বলেন, 'মূল ভেন্যুতে খেলা হবে না। এর অন্যতম কারণ হচ্ছে, ২২ আগস্টের মধ্যে শেরেবাংলার মাঠও পুরোপুরি প্রস্তুত হবে না।' অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলের সামনে কাছাকাছি আরও দু-একটি ভেন্যু উপস্থাপন করা হবে বলে জানান জালাল ইউনুস। প্রয়োজনে সেই ভেন্যু দেখানো হবে বলেও জানালেন বলেন তিনি। জালাল ইউনুস বলেন, 'আমরা খেলার ব্যবস্থা অবশ্যই করব। এই অপশনগুলোও যদি তারা পছন্দ না করে তাহলে অন্য অপশন আমাদের হাতে আছে।'
যেহেতু অস্ট্রেলিয়া দলের প্রস্তুতি ম্যাচের মূল সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে দূরত্ব। সেক্ষেত্রে ঢাকার ভেতর এখন খেলার উপযোগী মাঠ রয়েছে মোহম্মদপুর বেড়িবাঁধ এলাকায় অবস্থিত ইউল্যাব বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠ। তবে অস্ট্রেলিয়া দলকে ব্যাপক নিরাপত্তা দিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচটি ঢাকার মধ্যে আয়োজনেই বদ্ধপরিকর বলে জানিয়েছেন বিসিবির এই পরিচালক।
 
পূর্ববর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
monobhubon
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin