পূর্ববর্তী সংবাদ
শেষটাও ভালো হলো না মোহামেডানেরক্রীড়া প্রতিবেদক শক্তিশালী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে ১-০ গোলে হারিয়েছে অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল ব্রাদার্স ইউনিয়ন। তাই ম্যাচ শেষে খুশির জোয়ারটা স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে ব্রাদার্সের খেলোয়াড়দের চোখে মুখে -বাফুফেকথায় আছে 'শেষ ভালো যার, সব ভালো তার'। অতীতের মতো এবারও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে তেমন কিছু করে দেখাতে পারেনি ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টি ক্লাব। জননন্দিত ক্লাবটি বেশিরভাগ সময়ই কাটিয়েছে পয়েন্ট টেবিলের মাঝামাঝি স্থানে। এতেই পরিষ্কার সাদাকালো শিবিরের পারফরম্যান্সের চিত্র। সেটা বদলায়নি লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচেও। উল্টো অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল ব্রাদার্স ইউনিয়নের কাছে ১-০ গোলে হরেছে তারা। এই হারেও অবশ্য পয়েন্ট টেবিলে পঞ্চম স্থানটা নিজেদের দখলে রেখেই শেষ করছে দলটি। ২২ খেলায় ৯টি জয় আর পাঁচটি ড্র আর আটটি হারে ৩২ পয়েন্ট তাদের।
দেশের ক্রীড়াঙ্গনে একটা সময় ক্লাবের নাম তুললেই আবাহনী আর মোহামেডানের নাম চলে আসত সর্বাগ্রে। সেটা ক্লাব দুটোর দুরন্ত্ম পারফরম্যান্সের কারণেই। ফুটবলে মাঝে কিছু সময়ের জন্য খেই হারালেও আবাহনী অবশ্য নিজেদের ছন্দটা ধরে রেখেছে। ঐতিহ্যবাহী দলটি পেশাদার লিগে একের পর এক শিরোপা ঘরে তুলছে। কিন্তু মোহামেডান হয়ে আছে নিজেদের ছায়া। প্রথম তিন আসরে রানারআপ হয়েছিল তারা, এরপর ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। একসময় যারা শিরোপা রেসে থাকত, এখন তারাই কিনা লিগ শেষ করছে পঞ্চম স্থানে থেকে।
পঞ্চম স্থান নিয়ে শেষ করলেও গত মৌসুমের তুলনায় ভালো করেছে মোহামেডান! বিস্ময়কর হলেও কথাটা সত্য। তবে কিছুটা ভালো করলেও বেশ আগেই শিরোপার দৌড় থেকে ছিটকে পড়ে ঐতিহ্যবাহী সাদাকালো শিবির। শুধু তাই নয়, সেরা চারের বাইরে ছিটকে গিয়ে এএফসি কাপে খেলার সুযোগটাও নষ্ট করেছে তারা। এত এত ব্যর্থতার মাঝে লিগের শেষটা ভালো করার একটা সুযোগ ছিল তাদের। প্রথম লেগে ব্রাদার্সকে ৪-৩ গোলে হারানোর পর ফিরতি লেগেও জয় প্রত্যাশা করেছিলেন মোহামেডানের সমর্থকরা। কিন্তু তাদের সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি।
শুক্রবার দ্বিতীয় দেখায় হেরেই বসেছে মোহামেডান। ম্যাচে তাদের পারফরম্যান্স ছিল সাদামাটা। ২২তম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত ব্রাদার্স। কিন্তু বক্সের ডানপ্রান্ত্ম থেকে আরিফুল ইসলামের শট বার ছুঁয়ে চলে যায় বাইরে। তবে এর ঠিক চার মিনিট পর (২৬ মিনিট) এই আরিফুলই হাসি ফুটিয়েছেন ব্রাদার্স শিবিরে। আল আমিনের বাড়ানো বলে নিখুঁত ফ্লিকে বল জালে পৌঁছে দেন এই ফরোয়ার্ড (১-০)। যদিও জয়টা আরও বড় ব্যবধানে হতে পারত। কিন্তু শেষ পর্যন্ত্ম এক গোলেই হারের শোধ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে গোপীবাগের দলটিকে।
আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ২২তম রাউন্ডের শেষ দুই ম্যাচ দিয়ে পর্দা নামতে যাচ্ছে লিগের। প্রথম ম্যাচে বিকাল ৩.৩০ মিনিটে সাইফ স্পোর্টিং খেলবে রহমতগঞ্জের বিপক্ষে। দ্বিতীয় ম্যাচ সন্ধ্যা পৌনে ৬টায়, প্রতিপক্ষ শেখ রাসেল আর আরামবাগ।
 
পূর্ববর্তী সংবাদ
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin