খালেদাকে কোনো মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়নিসাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীযাযাদি রিপোর্ট জিয়ার অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা ছাড়া আর কোনো মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা জানান।
গত ৮ ফেব্রম্নয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় নিম্ন আদালত খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদ- দিয়েছে। ওইদিন থেকেই কারাবন্দি তিনি।
সোমবার কারা-মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, খালেদা জিয়াকে কুমিলস্না এবং ঢাকার তেজগাঁও ও শাহবাগ থানার তিনটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।
বেগম জিয়াকে আরও তিনটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দ-প্রাপ্ত হয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। সেই মামলায়ই তিনি কারাবন্দি আছেন। এ ছাড়া কোনো মামলায় তাকে শ্যোন আরেস্ট কিংবা এ ধরনের কিছু আমলে আনা হয়নি।'
মন্ত্রী বলেন, 'তার নামে আরও দুটি মামলায় পিডবিস্নউ (প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট) রয়েছে। সেগুলোতে তিনি যথাসময়ে কোর্টে যাবেন, এ বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই। দুটি মামলায় তিনি জামিনেও আছেন।'
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, 'এ ছাড়া শাহবাগ থানায় বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি (৫৩ নম্বর) মামলা রয়েছে। ১৮ ফেব্রম্নয়ারি তিনি সেই মামলায় হাজিরা দিতে যাবেন। গ্যাটকো দুর্নীতি মামলাও রয়েছে। এ ছাড়া তার নামে যেসব ওয়ারেন্ট রয়েছে সেগুলোর জন্য তাকে অ্যারেস্ট দেখানো হয়নি। এ বিষয়ে একটা ভুল ইনফরমেশন ছড়িয়েছে। শুধু দ-প্রাপ্ত মামলায়ই তিনি কারাবরণ করছেন।'
খালেদা জিয়ার কারাবাস যাতে দীর্ঘ হয় সরকার সেই চেষ্টা করছে কিনা- এ বিষয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, 'সরকার কোনো বিষয়েই কোনো রকম উৎসাহ দেখাচ্ছে না। আইনি প্রক্রিয়া যেভাবে চলে সেভাবেই চলছে। কোর্ট থেকে যেসব সিদ্ধান্ত্ম আসছে আমরা সেগুলোই বাস্ত্মবায়ন করছি। এখানে কোনো রাজনৈতিক প্রভাব বা অভিলাষ নেই।'
বিএনপির কর্মসূচিতে পুলিশ সেভাবে বাধা দিচ্ছে না, সরকার নীতিতে কোনো পরিবর্তন এনেছে নাকি বিএনপি চাইলে যে কোনো কর্মসূচি পালন করতে পারবে- এ বিষয়ে জানতে চাইলে মৃদু হেসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'সরকার কোনো কর্মকা-ে বাধা দিচ্ছে না। তারা (বিএনপি) যে পর্যন্ত্ম না যানবাহন কিংবা মানুষের চলাফেরায় কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে না বা কোনো ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে না সেই পর্যন্ত্ম সরকারের তরফ থেকে পুলিশ বলুন, আনসার বলুন কেউ অ্যাকশনে যাচ্ছে না।'
খালেদা জিয়াকে অনেকটা পরিত্যক্ত অবস্থায় থাকা নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে রাখা হয়েছে। অন্য কোনো কারাগারে কেন রাখা হলো না- এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'তার সুবিধার জন্যই রাখা হয়েছে। কাশিমপুর দীর্ঘ পথ। অনেক কয়েদি, এতে তার (খালেদা জিয়া) অসুবিধা হতো। কেরানীগঞ্জে ফিমেল ওয়ার্ড নেই। তার সামাজিক ভ্যালু রয়েছে, তিনি একাধিকবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। সবকিছু চিন্ত্মাভাবনা করেই তাকে ঢাকায় রাখা হয়েছে।'
'এই জেলখানাটা আমরা পরিত্যক্ত ঘোষণা করিনি। এখানে সব ফ্যাসিলিটি আমরা তাকে দিচ্ছি। তাই কারাগার নিয়ে কোনো বিভ্রান্ত্মির সুযোগ নেই। ডিভিশনে যেসব সুবিধা পাওয়ার কথা সব সুবিধাই তিনি পাচ্ছেন।'
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
প্রথম পাতা -এর আরো সংবাদ
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close