২০২৬ বিশ্বকাপ উত্তর আমেরিকায়ক্রীড়া ডেস্ক আজ মাঠে গড়াবে রাশিয়া বিশ্বকাপ। বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতার ২১তম আসর যখন দাঁড়িয়ে একদম দ্বারপ্রান্ত্মে, এমনকি ২০২২ বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য প্রস্ত্মত কাতার; ঠিক তখনই ঘোষণা করা হলো বিশ্বকাপের ২৩তম আসরের ভেনু্য। ২০২৬ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ হবে যৌথভাবে, উত্তর আমেরিকার তিন দেশ- যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা আর মেক্সিকোয়।
বুধবার ফিফার কংগ্রেসে চলছিল ২০২৬ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ নিয়ে ভোটাভুটি। সেখানেই মরক্কোকে পেছনে ফেলে বিশ্বকাপের স্বাগতিক হওয়ার দৌড়ে জিতে গেল উত্তর আমেরিকার তিন দেশ। এদিন ভোটাভুটিতে আফ্রিকার দেশ মরক্কো ভোট পেয়েছে ৬৫টি। আর উত্তর আমেরিকার তিন দেশ ভোট পেয়েছে ১৩৪টি।
ফিফার সদস্য হিসেবে মোট ২১৩টি দেশ থাকলেও বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক দেশ বাছাইয়ের ভোট দিতে পারে শুধুমাত্র ২০০টি দেশ। ২০০ ভোটের ১৩৪টিই পড়ে আমেরিকা, মেক্সিকো আর কানাডার বাক্সে। বাকি ৬৬ ভোটের ৬৫টি পড়ে আফ্রিকান দেশ মরক্কোর বাক্সে। একমাত্র দেশ হিসেবে টোগো কোনো পক্ষেই ভোট দেয়নি। অর্থাৎ ৬৭ শতাংশ ভোট পেয়ে মরক্কোকে হারিয়ে দেয় উত্তর আমেরিকার তিন দেশের যৌথ কনসোর্টিয়াম।
এই প্রথম তিন দেশ মিলে কোনো বিশ্বকাপের আয়োজক হতে যাচ্ছে। বুধবার মস্কোয় অনুষ্ঠিত ফিফার কংগ্রেসে ভোটাভুটিতে জয় লাভ করার পরপরই আনন্দে ফেটে পড়ে কনকাকাফ অঞ্চলের প্রতিনিধিরা। তিন দেশের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেয়ার মতোই একটি আয়োজন করতে চান তারা।
যুক্তরাষ্ট্র আর মেক্সিকোর বিশ্বকাপ আয়োজনের অভিজ্ঞতা থাকলেও কানাডা এই প্রথম আয়োজন করবে 'দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ'। ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ গড়িয়েছিল মেক্সিকোর মাঠে। ১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে আয়োজিত হয়েছিল প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের প্রতিযোগিতা।
কানাডা তাই চমক হয়েই আসছে ২০২৬ বিশ্বকাপে। ২০১৫ মহিলা বিশ্বকাপ অবশ্য গড়িয়েছিল কানাডার মাঠেই। তবে উত্তর আমেরিকার বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় চমকটা ফিফা দিচ্ছে দল বাড়িয়ে। ৩২ দল থেকে বেড়ে উত্তর আমেরিকার মাঠে বিশ্ব জয়ের লড়াইয়ে নামবে ৪৮ দল। ৩৪ দিনের এই টুর্নামেন্টে হবে মোট ৮০ ম্যাচ।
২৩তম বিশ্বকাপটি হবে মোট ১৬টি শহরে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ভেনু্য ১০টি। বাকি ৬টি কানাডা ও মেক্সিকোর মধ্যে ভাগাভাগি হবে। ফাইনাল হবে নিউইয়র্কের ৮৪ হাজার ৯৫৩ আসন বিশিষ্ট মেটলাইফ স্টেডিয়ামে।
 
এই প্রতিবেদন সম্পর্কে আপনার মতামত দিতে এখানে ক্লিক করুন
অনলাইন জরিপ
অনলাইন জরিপআজকের প্রশ্নজঙ্গিবাদ নিয়ে মন্ত্রীদের প্রচারে আস্থাহীনতার সৃষ্টি হয়েছে_ বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান রিপনের এই বক্তব্য সমর্থন করেন কি?হ্যাঁনাজরিপের ফলাফল
আজকের ভিউ
পুরোনো সংখ্যা
2015 The Jaijaidin
close