logo
বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  নাহিদ বিন রফিক   ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

বরিশালে জিংক ধানের বাণিজ্যিকীকরণ কর্মশালা

জিংকসমৃদ্ধ ধানের বাণিজ্যিকীকরণ শীর্ষক দিনব্যাপী এক আঞ্চলিক কর্মশালা গত ২৭ নভেম্বর বরিশালের সাগরদি ব্রির সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। হারভেস্ট পস্নাস আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের (ডিএই) অতিরিক্ত পরিচালক মো. আফতাব উদ্দিন। তিনি বলেন, দেশে পর্যাপ্ত খাবার আছে। তারপরও কিছুলোক পুষ্টির অভাবে ভুগছেন। পুষ্টি সম্পর্কে অজানাই এর প্রধান কারণ। তাই সবাইকে সচেতন হতে হবে। খাদ্যে পুষ্টি সরবরাহ না করে ওষুধ খাইয়ে ঘাটতি পূরণ সম্ভব নয়। সে ক্ষেত্র জিঙ্কসমৃদ্ধ ধান হতে পারে আমাদের আশীর্বাদ। আর এ জন্য এর উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের দিকে গুরুত্ব দিতে হবে সমানভাবে। হারভেস্ট পস্নাসের কান্ট্রি ম্যানেজার ড. মো. খায়রুল বাশারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথিরা ছিলেন বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউটের (ব্রি) মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আলমগীর হোসেন, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনিস্টিটিউটের (বারি) মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ সামসুল আলম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস, অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ গোলাম মো. ইদ্রিস, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএডিসি) যুগ্ম পরিচালক ড. মো. মিজানুর রহমান, ডিএই পটুয়াখালীর উপ-পরিচালক হৃদয়েশ্বর দত্ত, পিরোজপুরের উপ-পরিচালক আবু হেনা মো. জাফর, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মাইনুদ্দিন, বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিটের (বারটান) ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. জামাল হোসেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে