logo
শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

  য় হাট্টি মা টিম টিম ডেস্ক   ০৮ জুন ২০১৯, ০০:০০  

বক নিয়ে বকবক

বক নিয়ে বকবক
মূলত আমাদের দেশে চার-পাঁচ রকমের বকের দেখা পাওয়া যায়। এর মধ্যে ধূসর বক, লালচে বক, সাদা বক, গোবক, কোঁচ বক ও খুন্তে বক উলেস্নখযোগ্য। বিভিন্ন জাতের বক সাধারণ চোখে দেখতে এক রকম মনে হলেও ভালো করে তাকালেই এদের মধ্যে আলাদা বৈশিষ্ট্য দেখতে পাবে তোমরা।

ধূসর বকের শরীরের ওপরের দিকটা ছাই রঙের, মাথা ধূসর, গলা সাদা, সরু ও লম্বা, ঠোঁট ছুরির মতো শক্ত ও ছুঁচালো। পা অন্যান্য পাখির চেয়ে বেশ লম্বাটে। এদের মাথায় কালো রঙের লম্বা ঝুঁটি থাকে। বুক ও গলার পালকের কাছে থাকে কালো কালো ফোঁটা ফোঁটা চিহ্ন। মজার ব্যাপার হলো- এ প্রজাতির বকের নারী-পুরুষ দেখতে প্রায় একই রকম। ধূসর বক তাদের জাতভাইদের নিয়ে একত্রে থাকতে ভালোবাসে। এ জাতের বক ভালো মিস্ত্রিও বটে। এরা কাঠি, ঘাস দিয়ে বাসা বানিয়ে বছরের পর বছর সে বাসা ব্যবহার করে। ধূসর বকেরা একসঙ্গে কতটি ডিম দেয় জানো? দু-তিনটি ডিম পাড়ে তারা। ডিমের রং হয় গাঢ় সবুজ।

ধূসর বকের আরেক জাতভাই হলো লালচে বক। তবে এরা দেখতে ধূসর বকের চেয়ে খানিকটা ছোট। এদের চেনা যাবে শরীরের ওপরের অংশ ধূসর লালচে এবং গলায় ও মাথায় লালচে বাদামি, নিচের অংশে কালো ছোপ ছোপ দাগ দেখে। বকের নানা জাতের মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর জাত এটি।

এবার আসা যাক সাদা বকের কথায়। এরাও কিন্তু লালচে বকের চেয়ে কম সুন্দর নয়। আমাদের দেশে বড়, ছোট, মাঝারি- এ তিন ধরনের সাদা বক পাওয়া যায়। এদের সঙ্গে ধূসর বকের চেহারার বেশ মিল রয়েছে। এরা দেখতে ধূসর বকের মতোই। তবে দেখতে একই রকম হলে কী হবে, এরা ধূসর বকের মতো দল বেঁধে থাকতে মোটেই ভালোবাসে না। এরা জলের কাছে বড় কোনো গাছে বাসা বেঁধে থাকতে পছন্দ করে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে