logo
  • Wed, 19 Sep, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ২৫ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০  

মাইগ্রেন

আরেক ধরনের মাথাব্যথা আছে, যা কিনা- প্রায়ই ভুলভাবে ডায়াগনোজড হয়। তা হচ্ছে মাইগ্রেন। আমাদের অনেকে তীব্র যে কোনো মাথাব্যথাকেই মাইগ্রেন বলে ভুল করেন। প্রকৃত মাইগ্রেনে মাথাব্যথার আগে চোখ কিছুক্ষণের জন্য অন্ধকার দেখতে পারে, চোখের সামনের বস্তুগুলো কম্পমান দেখতে পাবেÑ চোখ বন্ধ করলেও কম্পমান অলীক বস্তু দেখা যেতে পারে এ অবস্থাকে অরা বলে। এ অরার কিছুক্ষণ পর মাথাব্যথা শুরু হয়ে আস্তে আস্তে ব্যথার তীব্রতা বাড়ে এবং এক সময় বমি হয়ে যায়। তারপর আস্তে আস্তে মাথাব্যথা কমে আসে। মাইগ্রেন মাথাব্যথা মাত্র কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী হয়।

সুতরাং সব মাইগ্রেন মাথাব্যথা হলেও সব মাথাব্যথাই মাইগ্রেন নয়Ñ এ কথা মনে রাখতে হবে।

পরিশেষে মাথাব্যথার কারণ অনেক। তার মধ্যে চোখের ভূমিকা সামান্যই। তবে অবশ্যই মাথাব্যথায় চোখের সমস্যার কথা মনে রাখতে হবে। যদিও সব মাথাব্যথাই চোখ থেকে উৎপন্ন হয়।

এসব মাথাব্যথার চিকিৎসা আছে। অনেক ক্ষেত্রে কিছু ওষুধ সেবন করলেই হয়। অনেক সময় চশমা লাগে, অনেক সময় আবার কন্ট্যাক্ট লেন্স, কিছু কিছু ক্ষেত্রে মাথাব্যথা একদম সারিয়ে তোলা যায়। আবার কিছু কিছু ক্ষেত্রে অবদমিত করে রাখা যায়। আবার কিছু কিছু ধরনের মাথাব্যথা সারানো যায় না। এসব ক্ষেত্রে মাথাব্যথার প্রতি সহনশীলতা বাড়িয়ে রোগীদের চিকিৎসা করা যায়। আর তা করতে সাইকোথেরাপি বা মেডিটেশন ইত্যাদি উপরে আসে। মাথাব্যথা আসলেই একটি বড় সমস্যা। এর চিকিৎসার জন্য যেমন সঠিক রোগ নিণর্য় এবং চিকিৎসা প্রয়োজন, তেমনি রোগী এবং শুধু রোগী নয় পরিবারের এবং পারিপাশ্বির্ক সবার সহযোগিতার দরকার রোগীকে মাথাব্যথামুক্ত রাখতে।

আবারো বলি, সব মাথাব্যথার রোগীর মধ্যে ৯০ শতাংশের বেশি মাথাব্যথাই জটিল রোগ থেকে নয়। মাথাব্যথা চোখ থেকে উৎপন্ন নয় এ কথাটা মাথায় রাখতে হবে এবং মাথাব্যথা নিয়ে বেশি মাথাব্যথার প্রয়োজন নেই। এজন্য চিকিৎসকের সাহায্য গ্রহণ করা শ্রেয়। যদি কোনো খারাপ রোগ ধরা পড়েই যায় তা নিয়ে মাথাকুটে মরার প্রয়োজন নেইÑ একটু ধৈযর্ ধরুনÑ মাথা খাটান চিকিৎসা অবশ্যই আছে।

য় ইন্টারনেট
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে