logo
বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

  আইন ও বিচার ডেস্ক   ০৯ জুলাই ২০১৯, ০০:০০  

আইএস-পত্নীর ৫ বছরের কারাদন্ড

আইএস-পত্নীর ৫ বছরের কারাদন্ড
জার্মান নারী জাবিনে সিরিয়া ও ইরাকে পাড়ি দিয়েছিলেন আইএসের কোনো যোদ্ধাকে বিয়ে করতে।

নিজের দুই সন্তানকে বার্লিনে ফেলে চরমপন্থি আদর্শের পথে পা বাড়ান তিনি। ৫ জুলাই চরমপন্থি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইএসের সদস্য হওয়ার অপরাধে ৩২ বছর বয়সী জার্মান নারীর পাঁচ বছরের কারাদন্ডের সাজা ঘোষণা করে জার্মানির একটি আদালত।

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর ২০১৩ সালের শেষের দিকে সিরিয়ার উদ্দেশে রওনা দেন জাবিনে।

২০১৭ সাল পর্যন্ত ইরাকে ইসলামিক স্টেটের সঙ্গেই ছিলেন তিনি। সে বছর কুর্দি সেনার হাতে ধরা পড়লে তাকে জার্মানিতে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়।

২০১৮ সালে তিনি ফিরে এলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় ও স্টুটগার্ট শহরের একটি আদালতে শুরু হয় বিচারপ্রক্রিয়া।

সিরিয়ায় গিয়ে যে আইএস-যোদ্ধাকে বিয়ে করেন জাবিনে, তিনি যুদ্ধক্ষেত্রে মারা গেছেন বলে আদালতে জানিয়েছেন তিনি। জাবিনের মতে, ইসলামিক স্টেটের প্রতি তার আকর্ষণের মূল কারণ ছিল শরিয়া আইন, যার প্রতি নিষ্ঠার ফলেই বার্লিনে দুই সন্তানকে রেখে আগে ইসলাম ধর্মগ্রহণ ও পরে দেশত্যাগ করেন তিনি। কিন্তু আইএসের হয়ে যুদ্ধে নামার ইচ্ছা তার কখনোই ছিল না বলেও জানান তিনি।

সরকারপক্ষের আইনজীবীদের মতে, সিরিয়া ও ইরাকে থাকাকালীন অস্ত্রচালনায় প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন জাবিনে।

তবে আদালতকে জাবিনে জানিয়েছেন, একসময় তিনি ইসলামিক স্টেট ছেড়ে দিয়েছিলেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে