logo
শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  আইন ও বিচার ডেস্ক   ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

দুবাইয়ের আমিরের বিরুদ্ধে পলাতক স্ত্রীর মামলার শুনানি

প্রাণনাশের ভয়ে পালিয়েছেন বলে অভিযোগ দুবাই আমিরের স্ত্রী প্রিন্সেস হায়ার। লন্ডনের আদালতে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেণ তিনি। লন্ডনের একটি আদালতে সম্প্রতি উপস্থিত হতে দেখা গেছে দুবাই আমিরের স্ত্রী প্রিন্সেস হায়া বিনত আল-হুসেইনকে। স্বামীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের মামলার প্রথম শুনানির দিনে উপস্থিত হলেন তিনি।

চলতি বছরের শুরুর দিকে দুবাই থেকে পালিয়ে লন্ডনে আশ্রয় নেন তিনি। জানা গেছে, প্রিন্সেস হায়া ও দুবাই আমির শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদের ১১ বছর বয়সি একটি কন্যা ও সাত বছর বয়সি একটি পুত্রসন্তান রয়েছে। সন্তানদের নিজের কাছে রাখার দাবি নিয়ে আদালতে হাজির হয়েছেন হায়া।

লন্ডনে পালিয়ে এসে বেশ কয়েকটি মামলা দায়ের করেন তিনি। এর মধ্য রয়েছে সন্তানদের সুরক্ষায় জোরপূর্বক বিয়ে দেওয়া ঠেকানো ও সব ধরনের হয়রানি থেকে নিজেকে সুরক্ষার মামলা।

প্রিন্সেস হায়া দুবাই থেকে প্রথমে জার্মানি গিয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছিলেন বলে জানা গেছে। জার্মানিতে রাজনৈতিক আশ্রয় না পেয়ে তিনি যান লন্ডনে। গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, হায়া লন্ডনের কেনসিংটনে অবস্থিত একটি মনোরম বাড়িতে বাস করেন যার মূল্য আনুমানিক দশ কোটি ডলার।

করেছেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তিনি একজন ক্রীড়াবিদও। ২০০০ সালের সিডনিতে অনুষ্ঠিত অলিম্পিকেও অংশগ্রহণ করেছিলেন তিনি। এদিকে আমির শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদেরও সম্পর্ক রয়েছে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সঙ্গে।

পুরো নাম প্রিন্সেস হায়া বিনত আল-হুসেইন। জর্ডানের বাদশাহ আবদুলস্নাহর সৎ বোন তিনি আর দুবাই আমির শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদের ছয় নম্বর স্ত্রী।

এখনো স্পষ্ট নয় কেন প্রিন্সেস হায়া দেশ ত্যাগ করেছেন। তবে গণমাধ্যম বলছে এর মধ্যে কোনো পারিবারিক জটিলতা থাকতে পারে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে