logo
বুধবার ১৭ জুলাই, ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

  তানিয়া তন্বী   ০২ জুন ২০১৯, ০০:০০  

স্নিগ্ধ সাজে ঈদ সকালে

স্নিগ্ধ সাজে ঈদ সকালে
ঈদ আয়োজনে নানা পরিকল্পনার বাস্তব রূপ দিতে সময়টা শুরু হয় সকাল থেকেই। উৎসব আনন্দে হাজার কাজের ভিড়েও নিজেকে পরিপাটি আর আকর্ষণীয় করে সাজিয়ে রাখতে এ দিনে রমণীরা একটু হলেও উদ্বিগ্ন থাকেন। ঈদের দিনে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর গোসলটা সেরে নিলে সারাদিনের জন্য চিন্তামুক্ত থাকা যায়। এরপর নতুন পোশাক পরে হয় দিনের শুরু।

গৃহিণীরা সুতি কাপড় পরে কাজ শুরু করতে পারেন। আর যাদের রান্নায় ব্যস্ত থাকতে হয়, তাদের সকালটা হতে পারে অপেক্ষাকৃত হালকা এবং নরম কাপড়ে ছিমছাম সাজের মধ্য দিয়ে।

শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, ফতুয়া, জিন্স যেটাই হোক তার সঙ্গে ম্যাচিং করে পরা যায় দুটি চুড়ি, কপালে ছোট্ট একটি টিপ, পায়ে দুই ফিতার চটি। সবার মধ্যেই খুশি ভাবটা থাকে তাই সাজগোজের ব্যাপারটিও বেশি প্রাধান্য পায়। চেহারার মধ্যে মলিনতা থাকলে দিনটিই মাটি হয়ে যাবে। নিজেকে উৎফুলস্ন আর সতেজ দেখানোর জন্য হালকা মেকআপই যথেষ্ট। মুখ, পরিষ্কার করে হালকা বেইস নেয়া যায়। এরপর ফেস পাউডার দিয়ে আলতোভাবে প্রলেপ দেয়া যেতে পারে। চোখে হালকা শ্যাডো লাগাতে পারেন। সঙ্গে হালকাভাবে হাইলাইট করা যায়, যা বোঝা যাবে না। কিন্তু চোখ সুন্দর দেখাবে।

চোখের কোণে চিকন করে কাজল লাগাতে পারেন। আই লাইনার লাগানো যায় তবে সেটি পানিরোধক হলে ভালো হবে। মাশকারা দিয়ে চোখের সাজে বেশি ভারী ভাব না আনলেই ভালো। বস্নাসন দিলেও হালকা হলে চেহারা আরও সতেজ দেখাবে। ঠোঁটে লাগানো যেতে পারে হালকা রঙের লিপস্টিক, ভ্যাসলিন অথবা লিপগস্নস। হালকা এসব রঙে বেশ ঘরোয়া স্নিগ্ধতা আনবে।

চুল শুকিয়ে ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে রাখাই ভালো। আর চুল যদি ছোট থাকে তাহলে ক্লিপ দিয়ে আটকে রাখা যায়। এতে কাজে বিঘ্ন ঘটাবে না। কাজ করতে গিয়ে নিজের কাছে যে পোশাকে স্বাচ্ছন্দ্য মনে হবে সেটিই ভালো।

ঈদের আগের রাতে নেইল পলিশ আর মেহেদি লাগানোর ঝামেলা মিটিয়ে রাখায় বুদ্ধিমানের কাজ। শরীরের অন্য জায়গাগুলোর যত্ন থাকা চাই এদিনে। ভুল করা যাবে না হাত, পা, কনুই, ঘাড়ে, পিঠে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে। ভারী গহনা এড়িয়ে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে হালকা গহনাও পরতে পারেন।

আপনার সুন্দর সাজের সঙ্গে মনের মাধুরী মিশানো হাসি দিয়েই শুরু করুন সারাদিনের কর্মসূচি। উপভোগ করুন ঈদের পুরো দিন। পরিবারের সব সদস্যের কাছে নিজেকে করে তুলুন আকর্ষণীয়। অতিথি আপ্যায়নে নিজের প্রচেষ্টাকে বিলিয়ে ঈদের খুশিতে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে