logo
শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  রঙ বেরঙ ডেস্ক   ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

ব্রণ নিয়ে দুশ্চিন্তা

ব্রণ নিয়ে দুশ্চিন্তা
অনেকেই ভাবেন, ত্বকে ময়লা জমে ব্রণ হয়েছে তাই লোমকূপ খুলে দিতে হবে। এই ভেবে তারা নিয়মিত গরম ভাপ নেন। গরম পানির ভাপ নেয়া যাবে, কিন্তু তা মাসে সর্বোচ্চ একবার। নিয়মিত ভাপ নেয়া মোটেই ঠিক নয়। কারণ, নিয়মিত ভাপ নিলে লোমকূপের মুখ বড় হয়ে যায়। চেহারায় খাদ তৈরি হয়। চোখের চারপাশের কোষগুলোরও ক্ষতি হয়। তাই ব্রণ দেখা দিলেই অস্থির না হয়ে কিছুদিন অপেক্ষা করে দেখুন। একটু সময় নিলে অযাচিত ব্রণ এমনিতেই চলে যাবে।

রূপবিশেষজ্ঞ শাহানা আকতার বলেন, 'আমাদের মুখের ত্বকে স্বাভাবিকভাবেই তেলের উপস্থিতি থাকে। ত্বকের সুরক্ষা নিশ্চিত না করে বাইরের রোদ, ধুলাবালি, ময়লা, পানি ইত্যাদি মুখে লাগালে এবং নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার না করলে ব্রণ হওয়া স্বাভাবিক। হঠাৎ ব্রণ হলে প্রথমে খুঁজে বের করতে হবে কেন ব্রণ হলো। মেয়েদের ঋতুস্রাব চলাকালেও ব্রণ হতে দেখা যায়। এ ছাড়া অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা, অনিদ্রা, অ্যালার্জি আছে এমন খাবার খেলে ব্রণ হতে দেখা যায়। এসব বিষয়ে সতর্ক থাকলে ব্রণের সমস্যা চলে যাবে। অধিকাংশ সময় দেখা যায়, হঠাৎ ওঠা ব্রণ হঠাৎই চলে যায়। এ নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। তবে সতর্ক হতে হবে। নিয়মিত ক্লেনজার ও টোনার দিয়ে ঘুমানোর আগে ও পরে মুখ পরিষ্কার করতে হবে। তা ছাড়া বরফও ঘষতে পারেন মুখে। বরফ দিলে ব্রণ কমে। কোনো নিমন্ত্রণ বা খুব তাড়া থাকলে লবঙ্গ পেস্ট করে ব্রণের ওপর লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। দু-একদিনের মধ্যেই ব্রণ চলে যাবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে