logo
রোববার ২৬ মে, ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক   ২০ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০  

ভাষা নিয়ে বিজ্ঞানীরা

সহজ কথায়, ভাব/ভাবনা প্রকাশের যে কোনো মাধ্যমেই ভাষা হতে পারে মৌখিক, আক্ষরিক অথবা ইঙ্গিত। প্রাণিজগতের সবার সব মিলিয়ে কত ভাষা আছে বলতে পারছি না তবে শুধু মানুষেরই ভাষার সংখ্যা প্রায় ৬ হাজারের ওপর। সেই সঙ্গে গত শতাব্দী থেকে যোগ হয়েছে যন্ত্রের ভাষা, যা দিয়ে আমরা মেশিনের সঙ্গে কথা বলি, আদেশ-নির্দেশ দিই। এরই নাম 'প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ'। এ ভাষার সংখ্যাও কিন্তু কম নয় তবে হাতে গোনা কিছু জনপ্রিয় 'প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ' কর্তৃত্ব করে চলেছে।

সম্প্রতি করহমংঃড়হ টহরাবৎংরঃু-এর ফরেনসিক সফ্‌টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রফেসর খবং ঐধঃঃড়হ-এর ৪৫ মিলিয়ন লাইনের কোডের এক জরিপে দেখা যায় ঈ,ঈ++ এবং ঔধাধ-তে বেশি লেখা হয়েছিল। এ ছাড়া ঋড়ৎঃৎধহ, অফধ,ঞপষ এবং অন্যান্য ভাষার দেখা পাওয়া যায়।

কিন্তু আজকের কম্পিউটিংয়ের সঙ্গে দশক পুরনো হাতে গোনা কয়েকটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যথেষ্ট নয়। স্বয়ং ঈ++ এর স্রষ্টা, প্রফেসর ইলধৎহব ঝঃৎড়ঁংঃৎঁঢ়-ও তাই মনে করেন। তিনি বলেন, জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজগুলো অনেক ক্ষেত্রে সহায়ক হলেও কিছু ফাংশনের জন্য এগুলো যুগোপযোগী নয়। এসব কারণে চলমান ইন্ডাস্ট্রির চাহিদা পূরণ করতে গিয়ে কোডিং হয়ে পড়ে জটিল, ব্যয় ও সময় সাপেক্ষ। প্রযুক্তি যখন মাল্টি-কোর প্রোসেসিং, উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন-ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের দিকে এগিয়ে চলেছে তখন কিছু নতুন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ নিয়ে আসতে পারে সময়োপযোগী ও গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন যা কিনা আগামীর সমস্যার সহজ সমাধান দিতে সক্ষম।

সম্ভাবনাময় কিছু প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ নিয়ে বিজ্ঞানীরা আরও অনেক গবেষণা করছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে