logo
শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ০৯ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

করোনা উপসর্গে ৪ জেলায় আরও ৭ জনের মৃত্যু

করোনা উপসর্গে ৪ জেলায় আরও ৭ জনের মৃত্যু
করোনা উপসর্গে কুমিলস্নায় ৪, পটুয়াখালী ১, সাতক্ষীরায় ১ ও যশোরে ১ জন মারা গেছেন

করোনা উপসর্গে দেশের ৪ জেলায় ৭ জনের মৃতু্য হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ও বুধবার কুমিলস্নায় ৪ জন, পটুয়াখালী ১, সাতক্ষীরা ১ ও যশোরে ১ জন মারা গেছেন। আমাদের আঞ্চলিক অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর : কুমিলস্না : কুমিলস্না কোভিড-১৯ হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে বুধবার ভোর পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন চারজন। হাসপাতালের পরিচালক চিকিৎসক মো. মুজিবুর রহমান সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টা ৫০ মিনিটে কুমিলস্নার নাঙ্গলকোট উপজেলার বাতাবাড়িয়া এলাকার ৪২ বছরের এক ব্যক্তি, রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে কুমিলস্নার দেবীদ্বার উপজেলার ৬০ বছরের এক ব্যক্তি, মঙ্গলবার বেলা ২টা ৩০ মিনিটে কুমিলস্না সিটি করপোরেশনের গোবিন্দপুর এলাকার ৫০ বছরের এক পুরুষ এবং মঙ্গলবার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে কুমিলস্নার হোমনা উপজেলার ৬৫ বছরের এক নারী মারা যান। পটুয়াখালী : পটুয়াখালীর গলাচিপায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ফজলুর রহমান প্যাদা (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃতু্য হয়েছে। বুধবার দুপুর ১টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথেই মৃতু্য হয় তার। মৃত আহম্মেদ আলী প্যাদার ছেলের ফজলুর রহমান উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা। স্থানীয় বাসিন্দা জব্বার মিয়া জানান, রোববার হাসপাতালে নমুনা দিয়ে আসার পর থেকে নিজ বাড়িতে ফজলুর রহমান হঠাৎই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় জ্বর ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় দুপুরে তার মৃতু্য হয়। বিকালে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে। গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. মনিরুল ইসলাম জানান, ফজলুর কয়েক দিন ধরে জ্বর ও গলাব্যথায় ভুগছিলেন। ৫ জুলাই গলাচিপা হাসপাতালে তার করোনা টেস্টের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এখন পর্যন্ত তার রিপোর্ট আসেনি। সাতক্ষীরা : করোনা উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আমজাদ হোসেন নামে এক অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মীর মৃতু্য হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। স্বাস্থ্যকর্মী আমজাদ হোসেন (৬৫) সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ঈশআবরীপুর গ্রামের গোলাম সরদারের ছেলে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. ভবতোষ কুমার মন্ডল বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আইসোলেশনে ভর্তি হন অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মী আমজাদ হোসেন। বুধবার সকাল ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেছেন। মারা যাওয়ার পর তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে লাশ দাফন করা হবে। চৌগাছা (যশোর) : যশোরের চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে শ্বাসকষ্ট নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তোফাজ্জেল হোসেন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃতু্য হয়েছে। তিনি উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের মাড়ুয়া গ্রামের মৃত কাদের মন্ডলের ছেলে। বুধবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে হাসপাতালের পুরুষ ওয়ার্ডে ভর্তি অবস্থায় তিনি মারা যান। তার নাতনি রিজিয়া খাতুন বলেন, শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে মঙ্গলবার তাকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে ভর্তি করা হয়। বুধবার সকালে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোছা. লুৎফুন্নাহার লাকি পরিবারের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন রোগীর আগে থেকেই শ্বাসকষ্ট ছিল। তবে জ্বর বা অন্য উপসর্গ ছিল না। মঙ্গলবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান। সকাল সাড়ে ১৯টার দিকে তিনি বলেন পরিবার চাইলে তার নমুনা নেওয়া হতো। তারা না চাওয়ায় করোনা নমুনা নেওয়া ছাড়াই ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে