logo
শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২২ মে ২০২০, ০০:০০  

আম্পানে বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গ

সাহায্যের প্রতিশ্রম্নতি মোদির মমতাকে ফোন সোনিয়ার

সাহায্যের প্রতিশ্রম্নতি মোদির মমতাকে ফোন সোনিয়ার
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় আম্পানে বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গকে সব রকম সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলার পর টুইটে এ কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এছাড়া মমতাকে ফোন দিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীও। সংবাদসূত্র : ডয়চে ভেলে, এনডিটিভি

বুধবার বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভয়ংকর আম্পান পশ্চিমবঙ্গকে তছনছ করে দেওয়ার পরও সকাল পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বার্তা না আসায় বিরোধী রাজনৈতিক মহলে রীতিমতো বিস্ময় সৃষ্টি হয়েছিল। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটা নাগাদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে বলেন, পুরো দেশ পশ্চিমবঙ্গের পাশে আছে। ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করতে সব ধরনের চেষ্টা করা হবে।

আম্পানে বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গের জন্য এখন বিপুল পরিমাণ আর্থিক সাহায্য প্রয়োজন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার রাতেই জানিয়ে দিয়েছেন, করোনার পর রাজ্যের হাতে অর্থ নেই। এই অবস্থায় কেন্দ্রীয় সরকার যেন রাজনৈতিক দিক থেকে বিষয়টি না দেখে মানবিকতার দিক থেকে দেখে। অর্থাৎ, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে ঢালাও অর্থ সাহায্য প্রত্যাশা করছেন তিনি। এমনকি বিশ্বের সব সংস্থার কাছেও তিনি সাহায্যের আবেদন করেছেন।

কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, তারা রাজ্য সরকারের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক অনুরোধের অপেক্ষা করছেন। রাজ্য সরকার জানান, কতটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কিন্তু এই বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন অনেকে। তাদের বক্তব্য, পশ্চিমবঙ্গের বড় অংশ ধ্বংস হয়ে গেল, অথচ কেন্দ্র এখনো প্রতিক্রিয়াহীন।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, এমনিতেই কেন্দ্রীয় সরকার দুইভাবে সাহায্য করতে পারে। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে বিপর্যয় মোকাবিলার তহবিল আছে। সেখান থেকে অবিলম্বে কিছু অর্থ পশ্চিমবঙ্গকে দিতে পারেন মোদি। দ্বিতীয়ত, কেন্দ্রীয় দল রাজ্যে যাবে। তারা ক্ষয়ক্ষতি দেখে কেন্দ্রীয় সরকারকে একটা রিপোর্ট দেবে। তার ভিত্তিতে কেন্দ্র অর্থ সাহায্য করবে রাজ্যকে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে