logo
রোববার ২৬ মে, ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

গণভোটে পাস

সিসি ২০৩০ সাল পর্যন্ত

ক্ষমতায় থাকবেন

যাযাদি ডেস্ক

মিসরের গণভোটে প্রায় ৯০ ভাগ ভোটার প্রেসিডেন্ট জেনারেল আবেদল ফাত্তাহ আস-সিসিকে ক্ষমতায় রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন। এর ফলে দেশটির সংবিধান পরিবর্তন করা হবে এবং জেনারেল সিসির ২০৩০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার পথে আর কোনো বাধা থাকল না।

মঙ্গলবার মিসরের জাতীয় নির্বাচন কমিশনের প্রধান লাশিন ইব্রাহিম সংবাদ সম্মেলনে জানান, গণভোটের মাধ্যমে ২০১৪ সালের সংবিধান সংশোধনকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তিনি দাবি করেন, গণভোটে ৮৮.৮৩ ভাগ ভোটার পরিবর্তনের জন্য, অর্থাৎ সিসিকে ক্ষমতায় থাকার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। গণভোটে ভোটার উপস্থিতি ছিল ৪৪.৩৩ ভাগ। ইব্রাহিম জানান, 'সংবিধান অনুসারে এখন থেকেই এই পরিবর্তন কার্যকর হবে।'

গত শনিবার থেকে মিসরে গণভোট শুরু হয়ে সোমবার পর্যন্ত তা চলে। দেশটির ছয় কোটি ১০ লাখ ভোটারের মধ্যে দুই কোটি ৭০ লাখ ভোটার ভোট দিয়েছেন।

সংবাদসূত্র : পার্স টুডে

ভারতের সমাজচিত্র

প্রতি ১০ নারীর ৭ জনই

পরকীয়ায় লিপ্ত

যাযাদি ডেস্ক

ভারতে প্রতি ১০ জন নারীর মধ্যে সাতজন তাদের স্বামীর সঙ্গে প্রতারণা করছেন। ঘরের কাজে সহায়তা না করায় তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছেন। এমনকি এই নারীরা স্বামীকে ঠকাচ্ছেন তাদের বৈবাহিক জীবন একঘেয়েমি হয়ে পড়ায় এবং অবিশ্বাস

জন্ম নেয়ার কারণে।

বিবাহ-বহির্ভূত ডেটিং অ্যাপ 'গিস্নডেন' পরিচালিত এক জরিপে ভারতের নারীদের পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ার চাঞ্চল্যকর এই তথ্য উঠে এসেছে। 'নারীরা কেন ব্যভিচারে জড়িয়ে পড়ছেন' শিরোনামে জরিপটি পরিচালনা করা হয়েছে। পরকীয়ার অন্যতম অনলাইন পস্ন্যাটফর্ম এই অ্যাপটির ভারতে ব্যবহারকারী অন্তত পাঁচ লাখ।

গিস্নডেনের জরিপ বলছে, ভারতের ব্যাঙ্গালুরু, মুম্বাই, কলকাতার মতো শহরের নারীরা সবচেয়ে বেশি পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছেন। স্বামীর সঙ্গে বৈবাহিক জীবনে অসুখী, অবজ্ঞা, গৃহস্থালির কাজে স্বামীর সহযোগিতা না করার কারণেই নারীরা পরকীয়ায় লিপ্ত হওয়ার পেছনে প্রধান যুক্তি হিসেবে তুলে ধরেছেন।

পরকীয়া করছেন; জরিপে অংশ নেয়া এমন ৭৭ শতাংশ ভারতীয় নারী বলেছেন, তাদের বিবাহিত জীবন একঘেয়েমি হয়ে পড়েছে। যে কারণে তারা বিয়ের বাইরে একজন

সঙ্গীকে খুঁজে নিচ্ছেন।

সংবাদসূত্র : আইএএনএস
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে