logo
মঙ্গলবার ২০ আগস্ট, ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১২ জুন ২০১৯, ০০:০০  

বিশ্বের সবচেয়ে দামি চিত্রকর্ম সৌদি যুবরাজের ইয়টে

বিশ্বের সবচেয়ে দামি চিত্রকর্ম সৌদি যুবরাজের ইয়টে
চিত্রকর্ম সালভাতর মুন্ডি
বিশ্বের সবচেয়ে দামি চিত্রকর্ম 'সালভাতর মুন্ডি' সৌদি 'ক্রাউন প্রিন্স' (যুবরাজ) মোহাম্মদ বিন সালমানের একটি বিলাসবহুল ইয়টে (প্রমোদতরী) শোভা পাচ্ছে বলে লন্ডনভিত্তিক এক আর্ট ডিলার দাবি করেছেন। 'আর্টনিউজ' ওয়েবসাইটে লেখা এক নিবন্ধে সোমবার আর্ট ডিলার কেনি শাখটার এই দাবি করেছেন। সংবাদসূত্র : বিবিসি

কিংবদন্তি শিল্পী লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা বলে খ্যাত এই চিত্রকর্মটি রেকর্ড ৪৫ কোটি ডলারে বিক্রি হওয়ার পর থেকে কোথায় আছে, তা এমনকি শিল্প-সংস্কৃতির জগতেও রহস্যাবৃত ছিল। ২০১৭ সালে নিলাম প্রতিষ্ঠান 'ক্রিস্টি' ওই চিত্রকর্মটি বিক্রি করে। বিক্রি হওয়ার পর থেকে আর কখনো জনসম্মুখে দেখা না যাওয়ায় ছবিটির স্বত্তাধিকারী, এর অবস্থান ও অস্তিত্ব নিয়ে জল্পনা-কল্পনা বাড়ছিল। ছবিটিতে পুনর্জাগরিত যিশু খ্রিস্টকে এক হাতে আশীর্বাদ করতে দেখা যায়, তার অন্য হাতে ধরা ছিল স্বচ্ছ পৃথিবী।

চিত্রকর্মটি সত্যি সত্যিই লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা কি না, তা নিয়েও বিশেষজ্ঞরা দ্বিধাবিভক্ত। শিল্পী এটি নিজে আঁকেননি, বরং তার ওয়ার্কশপে এর সৃষ্টি হয়েছে বলেও ধারণা অনেকের।

'এমবিএস' হিসেবে পরিচিত সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের নামে আরেক সৌদি প্রিন্স বদর বিন আবদুলস্নাহ 'সালভাতর মুন্ডি' নামের এ চিত্রকর্মটি কেনেন বলে প্রথম দাবি করেছিল ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। রিয়াদ ওই প্রতিবেদনের সত্যতা স্বীকার বা প্রত্যাখ্যান কোনোটিই করেনি।

মধ্যপ্রাচ্যের ঝাপসা জলে কোনোকিছুই স্ফটিক-স্বচ্ছ পরিষ্কার নয়- নিজের নিবন্ধে আর্ট ডিলার কেনি শাখটার এমনটা বললেও নিলামের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুটিসহ বেশ কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে ওই চিত্রকর্মটি 'ক্রাউন প্রিন্স'র হেফাজতে আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তার দাবি, মধ্য রাতে চিত্রকর্মটি এমবিএসের বিমানে উঠে হাওয়া হয়ে যায়, পরে স্থান পায় তার ইয়ট 'দ্য সেরেনে'। সৌদি আরবের আল-উলা প্রশাসনিক বিভাগের হাতে হস্তান্তর করার আগ পর্যন্ত ওই চিত্রকর্মটি ক্রাউন প্রিন্সের ইয়টেই থাকবে বলেও জানিয়েছেন এ আর্ট ডিলার। আল-উলা প্রশাসনিক বিভাগকে সৌদি আরব তাদের সংস্কৃতি ও পর্যটনের নতুন তীর্থস্থানে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে