logo
শুক্রবার ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৬ জুলাই ২০১৯, ০০:০০  

পাক-রাশিয়া নতুন সামরিক জোট হচ্ছে :ইঙ্গিত ইমরানের

পাক-রাশিয়া নতুন সামরিক জোট হচ্ছে :ইঙ্গিত ইমরানের
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান
রাশিয়া থেকে অস্ত্র কেনার কথা ভাবছে পাকিস্তান এবং দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে সম্পর্কও জোরদার হচ্ছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পরিবর্তিত বিশ্বে তার দেশ রাশিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলার পথে এগিয়ে যাওয়ায় তিনি খুশি। সম্প্রতি 'স্পুটনিক নিউজ'কে ইমরান বলেন, 'হঁ্যা, আমরা রাশিয়ার থেকে অস্ত্র কেনার কথা ভাবছি এবং আমি জানি, আমাদের সেনাবাহিনী এরই মধ্যে রুশ বাহিনীর সংস্পর্শে রয়েছে।' সংবাদসূত্র : সাউথ এশিয়ান মনিটর

পাকিস্তান সেনাবাহিনী বহু দশক ধরে পশ্চিমা ও চীনা অস্ত্রপাতির ওপর নির্ভর করলেও গত কয়েক বছর ধরে রুশ অস্ত্রের ব্যাপারে আগ্রহ দেখাতে শুরু করেছে। পাকিস্তান রাশিয়া থেকে বেশকিছু যুদ্ধবিমান ও অ্যাটাক হেলিকপ্টার কেনার কথা ভাবছে বলেও খবর বেরিয়েছে। এগুলোর মধ্যে সুখই সু-২৫ ফাইটার ও এমআই-৩৫এম হেলিকপ্টার রয়েছে। পাশাপাশি রাশিয়ার সঙ্গে যৌথ যুদ্ধ মহড়ায় অংশ নিচ্ছে পাকিস্তান এবং দেশটির সেনাবাহিনীর বেশকিছু কর্মকর্তা রাশিয়ায় অ্যাকাডেমিক প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। এতে দুই দেশের একটি নতুন সামরিক জোটের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

আফগানিস্তানে সোভিয়েত অভিযানের সময় দুই দেশ বিপরীত শিবিরে থাকলেও এখন সময় বদলে গেছে। ইমরান খান বলেন, 'রাশিয়ার ঘনিষ্ঠ হওয়ার পথে এগোতে পেরে আমি খুশি।' তিনি আরও বলেন, এই বিশ্বটির যেমন হওয়ার কথা ছিল, তেমনটি হয়নি এবং এটা দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। শক্তিকেন্দ্র বদলে যাচ্ছে, অথবা বেশকিছু শক্তিকেন্দ্রের উদ্ভব ঘটছে। তাই এই নতুন বিশ্বব্যবস্থায় রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক জোরদার হবে বলে আমি আশা করছি।'

ইমরান বলেন, ইসলামাবাদ একসময় একমাত্র মিত্র ও বাণিজ্য অংশীদার যুক্তরাষ্ট্রের দিকে চেয়ে থাকত। এখন চীন তার 'বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ' নিয়ে এসে স্বার্থের প্রতি মনোযোগের কেন্দ্রটি অন্যদিকে সরিয়ে নিচ্ছে।

এখন প্রশ্ন- পাকিস্তান কি ভারতের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করবে? ভারতে তৈরি করা হবে এমন বেশকিছু অত্যাধুনিক অস্ত্র বিক্রির প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া। এর মধ্যে অত্যাধুনিক ঘাতক সাবমেরিন এবং পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান রয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী রাশিয়া থেকে অন্যান্য অস্ত্রের সরবরাহও গ্রহণ করছে। ভারতীয় বিমান বাহিনীর জন্য রাশিয়া ১৮টি সু-৩০এমকেআই মাল্টিরোল ফাইটার পাঠাচ্ছে। এতে আইএএফের বহর উন্নত হবে। তাছাড়া, আইএএফের জন্য ১১০টি লাইটওয়েট ফাইটার সরবরাহ দরপত্রের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান পেতে যাচ্ছে রাশিয়ার তৈরি মিগ-৩৫।

ভারত তার পুরনো টি-৯০ মেইন ব্যাটল ট্যাংক আধুনিকায়ন (আপগ্রেড) করে টি-৯০এমএস সংস্করণে রূপান্তরের জন্য রাশিয়ার সঙ্গে ১.৯৩ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করছে। আপগ্রেড প্যাকেজের মধ্যে রয়েছে অধিকতর ভালো সুরক্ষা, বর্ধিত মবিলিটি ও উন্নত ইলেক্ট্রনিক ব্যবস্থা।

এটাই শেষ কথা নয়, রাশিয়ার কাছ থেকে বেশ কয়েকটি এস-৪০০ বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনছে ভারত। যুক্তরাষ্ট্রের চাপ থাকার পরও ভারত এই পথ থেকে সরে যায়নি। রাশিয়া বলছে, চলতি বছরের শেষ নাগাদ ভারতের কাছ থেকে চুক্তি অনুযায়ী অর্থের প্রথম কিস্তি হাতে পেলে ২০২০ সাল নাগাদ অস্ত্রগুলো সরবরাহ শুরু করবে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে