logo
রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

মস্কো নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের জনপ্রিয়তায় ধস

মস্কো নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের জনপ্রিয়তায় ধস
ভোট দিচ্ছেন ভস্নাদিমির পুতিন
রাশিয়ার স্থানীয় নির্বাচনে মস্কোয় জনসমর্থনের দিক দিয়ে বড় ধরনের ধাক্কা খেয়েছে প্রেসিডেন্ট ভস্নাদিমির পুতিনের ক্ষমতাসীন দল ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি। ৪৫ সদস্যের পার্লামেন্টে প্রায় এক তৃতীয়াংশ আসন খুইয়েছে দলটি। আসন সংখ্যা নেমে এসেছে ৩৮ থেকে ২৬টিতে। তবে এই ২৬ আসন নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখার পথে রয়েছে দলটি। রোববার রাশিয়াজুড়ে এ স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পর সোমবার পাওয়া প্রায় পূর্ণাঙ্গ ফলে এ চিত্র দেখা গেছে। সংবাদসূত্র : রয়টার্স

মস্কোর পার্লামেন্টের ৪৫ সদস্যকে নির্বাচিত করার জন্য ভোট দিয়েছে মানুষ। ভোটার উপস্থিতি ছিল মাত্র ২২ শতাংশ। ভস্নাদিমির পুতিন সমর্থক ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি বর্তমানে মস্কো পার্লামেন্টের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ২০০১ সালে পুতিনের সমর্থনে গড়ে উঠেছিল ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টি। দলটি সম্প্রতি জনপ্রিয়তা হারিয়েছে।

মস্কোর নির্বাচনে অবশ্য ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টির পক্ষ থেকে কোনো প্রার্থীকে আনুষ্ঠানিক সমর্থন দেয়া হয়নি। তবে দলটির নেতারা স্বতন্ত্র অবস্থান থেকে লড়াই করছেন। ধারণা করা হচ্ছে, ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টির কমতে থাকা জনপ্রিয়তার কথা বিবেচনা করেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। তারপরও এই নির্বাচনকে পুতিনের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নির্ধারণী নির্বাচন হিসেবে দেখা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সবচেয়ে আগ্রহ ছিল মস্কোর নির্বাচন নিয়ে।

ক্রেমলিন ও পুতিনের কঠোর সমালোচক আলেক্সাই নাভালনি বিরোধীদের কতটা একজোট করতে পারবেন, তারও পরীক্ষা ছিল এ নির্বাচন। কারণ, এ নির্বাচনে বিরোধীদলের অনেক প্রার্থীকেই অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে এবং এ নিয়ে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে। গ্রেপ্তারও হয়েছে অনেকে। উলেস্নখ্য, বেশ কয়েকজন বিরোধী প্রার্থীকে নির্বাচনে নিষিদ্ধ করার প্রতিবাদে গত ১০ আগস্ট প্রায় ৫০ হাজার মানুষ সড়কে নেমে বিক্ষোভ করে। এই বিক্ষোভকারীদের অনেকেই নাভালনির সমর্থক। এসব আন্দোলনে পুলিশের আক্রমণাত্মক ভূমিকা ও নির্বিচার গ্রেপ্তারের সমালোচনা জানিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।

এবারের নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীরা না থাকায় নির্বাচনে আসন পেয়েছে কমিউনিস্ট, স্বতন্ত্র এবং অন্যরা। কমিউনিস্ট পার্টি পেয়েছে ১৩ আসন এবং আরও দুটি বিরোধী পার্টি লিবারেল ইয়াবলোকো এবং জাস্ট রাশিয়া পেয়েছে তিনটি করে আসন। নির্বাচনে ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টির সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হচ্ছে, দলটির নেতা আন্দ্রেই মেটেলস্কির এবার পুনর্নির্বাচিত হতে পারেননি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে