logo
শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১০ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

দাবি মোহন ভগবতের

রামমন্দির নির্মাণ আরএসএসের প্রধান কর্তব্য

কয়েক শতাব্দী ধরে বহু বিতর্ক ও রাজনৈতিক সমস্যার কেন্দ্র হয়ে থেকেছে অযোধ্যা মামলা। বিতর্কিত এই মামলাকে কেন্দ্র করে ভারতের হিন্দু-মুসলমান সম্প্রদায়ের ভেতর সময়ে সময়ে ঘটেছে অনেক দাঙ্গা, দুই পক্ষেরই হাজারো তাজা প্রাণ নিভে গেছে অসময়ে। বহু দেনদরবার-খুনাখুনির পর অবশেষে সেই রায় গেছে হিন্দু সম্প্রদায়ের পক্ষে। আর তাই যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে আগাম সতর্কতা হিসেবে মুসলমানদের শান্ত থাকার এবং তাদের মধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন দেশটির সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতা থেকে শুরু করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও। শনিবার রায়ের পর মুম্বাইয়ের খাত্রি মসজিদের ইমামকে শাল পরিয়ে দিচ্ছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা -আউটলুক ইনডিয়া

রামমন্দির নির্মাণ আরএসএসের প্রধান কর্তব্য
সুপ্রিম কোর্টের অযোধ্যা মামলার রায়ের পর এবার ক্ষমতাসীন বিজেপির শরিক ও কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস) প্রধান লক্ষ্য রামমন্দির নির্মাণ। আরএসএস-প্রধান মোহন ভগবত সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর শনিবার সংবাদ সম্মেলন করে এই ঘোষণা দিয়েছেন। সংবাদসূত্র : এএনআই

তবে অযোধ্যায় পৃথক জমিতে মসজিদ নির্মাণ নিয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি তিনি। বিষয়টি ছেড়ে দিয়েছেন সরকারের ওপর। ভারতের নাগরিকদের কাছে শান্তি, সম্প্রীতি রক্ষার আহ্বান জানিয়ে আরএসএস-প্রধান মোহন ভগবত বলেন, 'এই রায়কে কারও জয় বা পরাজয়ের দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখা উচিত হবে না।'

অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষণার আড়াই ঘণ্টা পর শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে মহারাষ্ট্রের নাগপুরে আরএসএসের সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলন করেন মোহন ভগবত। দীর্ঘসময় ধরে চলা এই মামলায় সহযোগিতা করার জন্য সব পক্ষ ও ভারতীয় নাগরিকদের অভিনন্দন জানান।

রায়ের পর আরএসএসের লক্ষ্য কী হবে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ভগবত বলেন, 'এখন আমাদের লক্ষ্য হবে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ। আমরা রামমন্দির বানাবো অযোধ্যায়। আর সেটা সবাইকে নিয়েই আমাদের করতে হবে। অতীতের সব বিরোধ, বিবাদ এখন ভুলে যেতে হবে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে