logo
বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদ

কারফিউ ভেঙে জনস্রোত আসামের রাজপথে

আসামের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ইট-পাথর নিক্ষেপ উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই : মোদি খোঁচা কংগ্রেসের বিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে রিট মুসলিম লিগের

কারফিউ ভেঙে জনস্রোত আসামের রাজপথে
নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে আসামের গৌহাটিতে বিক্ষোভ
ভারতের পার্লামেন্টের দুই কক্ষে পাস হওয়া বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলের (সিএবি) প্রতিবাদে আসামের গুয়াহাটিতে বৃহস্পতিবার কারফিউ ভেঙে রাজপথে নেমে আসে হাজারও জনতা। নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতেই এদিন জায়গায় জায়গায় জনস্রোত থেকে বিক্ষোভ দেখায় তারা। এর আগে আসামের ছাত্র সংগঠনের নেতারা লোকজনকে রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানিয়েছিলেন। সংবাদসূত্র : এনডি টিভি, এবিপি নিউজ

দেশটির পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বুধবার সন্ধ্যায় সিএবি পাস হওয়ার পরপরই আসামের বিভিন্ন অংশে বিক্ষোভ জোরালো হয়। বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পুরো রাজ্যকেই অশান্ত করে তোলে। প্রতিবাদ চলতে থাকায় আসাম ও ত্রিপুরায় সব ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা হয়। গুয়াহাটি ও ডিব্রম্নগড়গামী বহু ফ্লাইট বাতিল করা হয়।

হাজার হাজার লোক রাস্তায় নেমে প্রতিবাদে অংশ নিতে থাকায় একপর্যায়ে আসামের চারটি এলাকায় সেনাবাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়। গুয়াহাটিতে প্রতিটিতে ৭০ জন করে সেনাবাহিনীর দুটি দল মোতায়েন করা হয়। এর পাশাপাশি ?তিনসুকিয়া, ডিব্রম্নগড় এবং জোরহাট জেলায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। বিক্ষোভের মুখে আসামের বৃহত্তম শহর গুয়াহাটিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কারফিউ জারি করা হয়।

এর আগে বুধবার রাতে রাজ্যসভায় বিল পাসের পর ডিব্রম্নগড়ের চাবুয়ায় বিক্ষুব্ধরা একটি রেলস্টেশনে আগুন লাগিয়ে দেয়। তিনসুকিয়া জেলার পানিতোলা রেলস্টেশনও প্রতিবাদকারীরা পুড়িয়ে দিয়েছে। ইনডিগো বৃহস্পতিবার তাদের ডিব্রম্নগড়গামী ও সেখান থেকে ছেড়ে আসার সব ফ্লাইট বাতিল করেছে। স্পাইসজেটও গুয়াহাটি ও ডিব্রম্নগড়গামী ও সেখানে থেকে ছেড়ে আসা তাদের সব ফ্লাইট শুক্রবার পর্যন্ত বাতিল করেছে। ভারতের অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচলকারী অন্য এয়ারলাইন্সগুলোও একই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার জন্য পুরো আসামজুড়ে ইন্টারনেট সার্ভিস বন্ধ রাখা হয়। বৃহস্পতিবার প্রতিবেশী ত্রিপুরায় বন্ধের ডাক দেয় বিরোধী দল কংগ্রেস। ব্যাপক প্রতিবাদের মুখে এই রাজ্যটিতে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে আসাম রাইফেলের ২১০ জন আধাসেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে বুধবারই জ্বলে উঠেছিল আসাম। কোনো সংগঠন ছাড়াই সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে এসেছিল। অবশ্য বৃহস্পতিবার আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছে 'অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন' (আসু) এবং 'কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি' (কেএমএসএস)। সাধারণ মানুষকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানিয়েছে তারা। আসুর পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, 'নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে। বেলা ১১টায় গুয়াহাটির লতাশিল ময়দানে জমায়েত রয়েছে। তার জন্য সবাইকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।' এই আহ্বানের পরই জনস্রোত নামে আসামে।

আসামের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ইট-পাথর নিক্ষেপ

অন্যদিকে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রভাব পড়েছে রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালের বাড়িতেও। বিক্ষোভকারীরা বৃহস্পতিবার দিব্রম্নগড়ে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি লক্ষ্য করে পাথর ও ইট ছুড়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনের এক রক্ষী জানিয়েছেন, এই হামলার জের ধরে বাড়ির জানালার বেশ কিছু কাচ ভেঙে পড়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন দিব্রম্নগড়ের এসপি গৌতম বড়ুয়া। শুধু সর্বানন্দের বাড়ি নয়, দিব্রম্নগড়ের বিজেপি বিধায়ক প্রশান্ত ফুকান ও বিজেপির দিব্রম্নগড় জেলা সভাপতি সুভাষ দত্তের বাড়িতেও হামলা করেছে বিক্ষোভকারীরা।

বুধবার থেকে আসামের ১০ জেলায় মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বাতিল করা হয়েছে। গুয়াহাটিতে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান প্রতিবাদ চলছে। দোকান-পাট, বাজার সব বন্ধ রয়েছে। যান চলাচলও বন্ধ আছে। বুধবার বিক্ষোভের কারণে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে আটকা পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল। তেজপুর সফর সেরে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে নামেন তিনি। কিন্তু সে সময় বাইরের পরিস্থিতি অশান্ত থাকায় সেখান থেকে আর বেরোতে পারেননি তিনি।

আসামের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই : মোদি

বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে আসামে উত্তাল বিক্ষোভের মুখে রাজ্যটির বাসিন্দাদের এ নিয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে এ পরামর্শ দেন তিনি। টুইটে মোদি বলেন, 'আসামের ভাইবোনদের আশ্বস্ত করতে চাই, পাস হওয়া সিএবি বিল নিয়ে তাদের উদ্বেগের কিছু নেই। আমি তাদের আশ্বস্ত করতে চাই, আপনাদের অধিকার, অনন্য পরিচয় ও সুন্দর সংস্কৃতি কেউ কেড়ে নিতে পারবে না। এটি ক্রমবর্ধমান এবং আরও বাড়তে থাকবে।' অসমিয়া ভাষায় দেওয়া আরেক টুইটে মোদি বলেন, 'কেন্দ্রীয় সরকার ও আমি সংবিধান অনুযায়ী আসামের মানুষের রাজনৈতিক, ভাষাগত, সাংস্কৃতিক ও ভূমিসংক্রান্ত অধিকারগুলোর সুরক্ষা দিতে প্রতিশ্রম্নতিবদ্ধ।' তবে প্রধানমন্ত্রীর এমন আহ্বানের পরেও বিক্ষোভে ভাটা পড়েনি।

এদিকে, অশান্ত আসমের ক্ষোভ প্রমশনে মোদির টুইট বার্তা নিয়ে খোঁচা দিয়েছে কংগ্রেস। আসামের কিছু জায়গায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে। সেই ঘটনাকে টেনে কংগ্রেসের তরফে পাল্টা টুইটে লেখা হয়েছে, 'আমাদের অসমিয়া ভাইবোনেরা আপনার এই আশ্বাস-বার্তা পড়তে পারবেন না মোদিজি। আপনি হয়তো ভুলে গেছেন, তাদের ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ রাখা হয়েছে।'

বিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে রিট মুসলিম লিগের

ভারতের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বুধবার পাস হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে 'অসাংবিধানিক' আখ্যা দিয়ে এরই মধ্যে সুপ্রিম কোর্টে রিট করেছে 'ইনডিয়ান ইউনাইটেড মুসলিম লিগ'।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে