logo
শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২৭ মার্চ ২০২০, ০০:০০  

ক্ষতিপূরণ মামলা দায়ের

আমরা করোনাভাইরাস তৈরি করিনি :দাবি চীনের

বিশ্বুস্বাস্থ্য সংস্থা চীনের পক্ষে কথা বলছে: ট্রাম্প

আমরা করোনাভাইরাস তৈরি করিনি :দাবি চীনের
ভারতীয় চীনা দূতাবাসের মুখপাত্র জি রং
করোনাভাইরাস চীনারা তৈরি করেনি এবং বিশ্বব্যাপী এটা ছড়িয়ে দেয়নি বলে দাবি করেছেন ভারতীয় চীনা দূতাবাসের মুখপাত্র জি রং। বুধবার তিনি এমনটি দাবি করেন। জি রং বলেন, 'আমরা করোনাভাইরাস তৈরি করিনি। আর এটিকে আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়েও দেইনি।' তিনি বলেন, 'বিশ্বের দেশগুলোর উচিত চীন যেভাবে করোনাভাইরাস ঠেকিয়েছে, সেটিতে মনোযোগ দেওয়া।' এদিকে, করোনাভাইরাসে মহামারিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাবিস্নউএইচও) ভাইরাসটির আঁতুড়ঘর চীনের পক্ষেই কথা বলছে বলে অভিযোগ তুলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও করোনাভাইরাস ছড়ানোর জন্য চীনকেই দায়ী করে আসছিল যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ। সংবাদসূত্র: এনডিটিভি, বিবিসি, রয়টার্স

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়। ভাইরাসটি এখন প্রায় পুরো বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে। চীনের দাবি, যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের থেকেই ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। কিন্তু অনেক বিশেষজ্ঞই দাবি করেছেন, চীনই এই ভাইরাস বানিয়ে আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়ে দিয়েছে। এমনকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও করোনাকে 'চীনের ভাইরাস' হিসেবে আখ্যায়িত করে থাকেন।

এরই মধ্যে চীনের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাস ছড়ানোর অভিযোগ নিয়ে ২০ লাখ কোটি ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করছেন মার্কিন আইনজীবী ল্যারি ক্লেম্যান। মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, 'প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসটি চীন 'যুদ্ধের জৈবিক অস্ত্র' হিসেবে তৈরি করেছে। চীনের ইচ্ছা বা অনিচ্ছা যেভাবেই হোক, এটি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ায় মার্কিন আইন লঙ্ঘনের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক আইন, চুক্তি ও নিয়ম লঙ্ঘন হয়েছে।' মামলার অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, 'মার্কিন সেনা অথবা অন্য কোনো দেশ যারা চীনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারে, তাদের ধ্বংস করতেই এই মারণ ভাইরাস তৈরি করেছে চীন। চীনের উহানের ল্যাবরেটরি (গবেষণাগার) থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।'

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চীনের

পক্ষে কথা বলছে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ করেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চীনের পক্ষেই কথা বলছে। বিষয়টি নিয়ে বুধবার হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, 'বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা খুব চীন ঘেঁষা আচরণ করছে। বিশ্বের অনেক মানুষ বিষয়টিতে খুশি নয়। আর এটা যে অন্যায় হচ্ছে, আর সে ব্যাপারে যে অনেক কথা হচ্ছে, তা নিয়ে আমি নিশ্চিত। আমার মনে হয়, অনেকেই ভাবছেন যে এটা অন্যায় হচ্ছে।'

একইভাবে করোনাভাইরাসের মহামারিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও অভিযোগ করেছিলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছে।

এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাসচিব টেড্রোস আধানম ঘেব্রেয়েসাসের ভূমিকা নিয়ে এর আগেই প্রশ্ন তুলেছিলেন মার্কিন কংগ্রেসের সদস্য মাইকেল ম্যাককল। তার সঙ্গে সুর মিলিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন মার্কিন কংগ্রেসের আরেক সদস্য গ্রেগ স্টিউব। তাদের অভিযোগ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাসচিবের সঙ্গে চীন অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। সম্প্রতি ঘেব্রেয়েসাস চীনের মুখপত্রের মতো আচরণ করে চলেছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে