logo
বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৭ মে ২০২০, ০০:০০  

মোদিকে রাহুল

বিপর্যয় ঠেকাতে ঋণ নয় গরিবদের টাকা দিন

বিপর্যয় ঠেকাতে ঋণ নয় গরিবদের টাকা দিন
রাহুল গান্ধী
কোনো আর্থিক প্যাকেজ নয়, কৃষক-শ্রমিকদের প্রয়োজন টাকা। সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা দিলে তারা আরও বেশি উপকৃত হবেন। শনিবার ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে এমনই ঝাঁঝালো ভাষায় মুখ খুললেন কংগ্রেস এমপি রাহুল গান্ধী। তার মতে, এটা যদি এখনই করা সম্ভব না হয়, তাহলে 'ভয়াবহ বিপর্যয়' নেমে আসবে ভারতজুড়ে। রাহুল বলেন, 'সরাসরি অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো, ২০০ দিনের কাজ, কৃষকদের জন্য টাকার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করা উচিত মোদির। কারণ এরাই দেশের ভবিষ্যৎ।' সংবাদসূত্র :এবিপি নিউজ, পিটিআই

লকডাউনের জেরে পুরো ভারতে অর্থনীতির চাকা স্তব্ধ হয়ে গেছে। অর্থনীতিকে সচল করতে কেন্দ্র বেশ কিছু আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করে। সেই প্রসঙ্গ তুলেই কেন্দ্রের সমালোচনা করেন রাহুল। ভিডিও কনফারেন্স সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রের এই আর্থিক প্যাকেজকে কটাক্ষ করে রাহুল বলেন, এটা আসলে 'ঋণের প্যাকেজ'। যা পরিযায়ী শ্রমিক এবং কৃষকদের পক্ষে মোটেই স্বস্তির নয়।

গত বছরে কংগ্রেস প্রস্তাবিত 'ন্যায় প্রকল্পের' বিষয়টিও এদিন উত্থাপন করেন রাহুল। বলা হয়েছিল, ওই প্রকল্পের আওয়তায় সমাজের গবির শ্রেণির বার্ষিক আয় ৭২ হাজার রুপি করা হবে। কংগ্রেসের প্রস্তাবিত সে রকমই প্রকল্প সরকারের নিয়ে আসা উচিত বলেই মনে করেন রাহুল। তিনি বলেন, 'যে পরিযায়ী শ্রমিকরা রাস্তা দিয়ে হেঁটে চলেছে, তাদের ঋণ নয়, টাকার প্রয়োজন। ঠিক তেমনই যে কৃষক সংকটে রয়েছেন, তারও টাকার প্রয়োজন। ঋণের প্রয়োজন নেই। আর তা যদি আমরা না করতে পারি তাহলে ভয়াবহ বিপর্যয় নেমে আসবে।'

লকডাউনের মধ্যেও ভারতের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে গত ১২ মে ২০ লাখ কোটি রুপির বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। যা ভারতের জিডিপির প্রায় ১০ শতাংশ। প্রকল্পের নাম দেওয়া হয় 'আত্মনির্ভর ভারত অভিযান'। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের জেরে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের। সেই ক্ষেত্রকে চাঙ্গা করতে গত ১৩ মে বড়সড় আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে