logo
বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৮ মে ২০২০, ০০:০০  

করোনায় ব্যর্থতা

আবারও ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনায় ওবামা

'এটি বর্তমান নেতৃত্বের ব্যর্থতা উন্মোচন করেছে' যুক্তরাষ্ট্রে একদিনেই আক্রান্ত ২৫ হাজারের বেশি

আবারও ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনায় ওবামা
মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস সংকট মোকাবিলায় উত্তরসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে আবারও সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। স্নাতক উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে অনলাইনে দেওয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, করোনা মোকাবিলায় দায়িত্বে থাকা অনেক কর্মকর্তা যে 'এমনকি দায়িত্ব পালনের ভানও করছেন না' মহামারি তা দেখিয়ে দিয়েছে। সংবাদসূত্র : বিবিসি, সিএনবিসি

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রশাসনের নেওয়া পদক্ষেপের সমালোচনা করলেন দেশটির সাবেক এ প্রেসিডেন্ট। এর আগে গত সপ্তাহে ফাঁস হওয়া এক কনফারেন্স ভিডিওকলে ওবামা মহামারি মোকাবিলায় সরকারের নেওয়া পদক্ষেপকে 'চরম বিশৃঙ্খলাপূর্ণ বিপর্যয়' হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছিলেন।

বাস্কেটবল তারকা লেব্রন জেমসের আয়োজনে শনিবার শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ অনুষ্ঠানে ওবামা ছাড়াও মালালা ইউসুফজাই, জোনাস ব্রাদার্স, মেগান রাপিনো, ফেরেল উইলিয়ামসের মতো সেলিব্রিটিরা উপস্থিত ছিলেন।

১৯৬৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক অধিকার আইন পাস হওয়ার আগে কৃষ্ণাঙ্গ শিক্ষার্থীদের জন্য বানানো কয়েক ডজন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক পাস শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ওবামা বলেন, 'কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বের ব্যর্থতা উন্মোচন করে দিচ্ছে।' তিনি বলেন, 'দায়িত্বে থাকা অনেক ব্যক্তিই; এমনকি দায়িত্ব পালনের ভানও করছেন না।'

প্রাণঘাতী এ ভাইরাস আফো-আমেরিকান সম্প্রদায়ের ওপর যে ভয়াবহ প্রভাব ফেলেছে, ওবামা তার বক্তৃতায় সে বিষয়টির ওপরও জোর দেন। তিনি বলেন, 'ঐতিহাসিভাবেই কৃষ্ণাঙ্গ সম্প্রদায় এই দেশে যে অন্তর্নিহিত বৈষম্য ও অতিরিক্ত ভারের মোকাবিলা করছে, এই রোগ (কোভিড-১৯) তার ওপরও আলো ফেলেছে।'

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি ও মৃতু্যর সংখ্যার হিসাবে অন্যদের সঙ্গে আফ্রো-আমেরিকানদের ব্যাপক অসামঞ্জস্যতা দেখা গেছে বলে জানিয়েছে মার্কিন গণমাধ্যম।

দুই মেয়াদে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন শেষে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর ওবামাকে সাধারণত উত্তরসূরির পদক্ষেপ নিয়ে তেমন সমালোচনা করতে দেখা যায়নি। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে চলতি মাসেই তাকে দুই দফা ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনা করতে দেখা গেল।

ট্রাম্প অবশ্য তার পূর্বসূরির এসব সমালোচনাকে মোটেও ভালো চোখে দেখছেন না। 'যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত হওয়া সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক অপরাধ,' গত সপ্তাহে এক টুইটে ওবামা ও তার সহযোগীদের কার্যক্রমকে এভাবেই বর্ণনা করেছেন রিপাবলিকান এ প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রে একদিনেই আক্রান্ত ২৫

হাজারের বেশি, মৃতু্য ১২২৪

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে আরও ২৫ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা 'ওয়ার্ল্ডোমিটার'র মতে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লাখ সাত হাজার ৭৯৮ জন। এছাড়া এখন পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছে ৯০ হাজারের বেশি।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ২৫ হাজার ৬০ জন এবং মারা গেছে এক হাজার ২২৪ জন। গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম প্রাণঘাতী করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। তবে উৎপত্তিস্থল চীনে এরই মধ্যে ভাইরাসটি নিয়ন্ত্রণে এলেও এটি ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বে।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতু্যতে শীর্ষে অবস্থান করছে যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃতু্যতে যুক্তরাষ্ট্রের ধারে-কাছেও নেই কোনো দেশ। যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যেই করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। জরিপ সংস্থাটির পরিসংখ্যান বলছে, দেশটিতে এরই মধ্যে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে তিন লাখ ৩৯ হাজার ২৩২ জন। বিভিন্ন রাজ্যে করোনা আক্রান্ত এক লাখ ৭৮ হাজারের বেশি। আর ১৬ হাজার ২৪৮ জনের অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক।

যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বিপর্যস্ত নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। ওই অঙ্গরাজ্যেই করোনায় আক্রান্ত ও মৃতু্য হয়েছে সবচেয়ে বেশি। নিউইয়র্কে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে তিন লাখ ৫৮ হাজার ৯৯ জন। অপরদিকে মারা গেছে ২৮ হাজার ১৩৪ জন। ওই অঙ্গরাজ্যে করোনায় আক্রান্ত দুই লাখ ৬৮ হাজার ৫৬৮টি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে