logo
সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ২৯ আষাঢ় ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০৭ জুন ২০২০, ০০:০০  

সা ক্ষা ৎ কা র

মানুষ গান শুনছে কিন্তু বিনোদিত হচ্ছে না

সংগীতাঙ্গনের আলোচিত কণ্ঠশিল্পী আঁখি আলমগীর। ছোটবেলা থেকেই শোবিজের সঙ্গে বসবাস তার। আর সংগীতাঙ্গনে গান গাইছেন দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে। বছরজুড়ে কনসার্ট নিয়ে তার ব্যস্ততা থাকলেও করোনার প্রভাবে বাতিল হয়ে গেছে তার অনেক প্রোগ্রাম। গান ছাড়াই কাটালেন এবারের ঈদ। সময় কাটছে বাসায়। করোনা, ঈদ, গান ও সমসাময়িক নানা বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন মাসুদুর রহমান

মানুষ গান শুনছে কিন্তু বিনোদিত হচ্ছে না
আঁখি আলমগীর
ঘরে বসে ঈদ...

প্রতি ঈদে গান নিয়ে ব্যস্ততা থাকলেও এবার তা হয়নি। সবার মতো আমারও এবারের ঈদটা অন্যরকমভাবে কেটেছে। আসলে ঈদের প্রকৃত আনন্দ থেকে সবাই বঞ্চিত ছিলাম। ঘরে বসেই ঈদ করতে হয়েছে। দুর্যোগের কারণে মনটা ভীষণ খারাপ থাকলেও ঘরবন্দিতে যতটুকু সম্ভব আনন্দে থাকার চেষ্টা করেছি। বাবা-মার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছি। কাছের মানুষদের সঙ্গেও যোগাযোগ হয়েছে।

ঘরের বাইরে...

সরকারি নির্দেশনা আসার আগে থেকেই আমি সন্তানদের নিয়ে বাসায় বন্দি জীবন কাটাচ্ছি। যদিও এখন কিছুটা শিথিল করা হয়েছে, তারপরেও খুব বেশি দরকার না হলে বাসা থেকে বের হচ্ছি না। ঈদের দিনেও বের হইনি। বাচ্চাদের সময় দিচ্ছি। ঘরের কাজ করছি। বিকেলের দিকে একটু ছাদে যাই। এছাড়া টিভি দেখে এবং ভালো না লাগলে কখনো কখনো ফেসবুকে ঢুকি।

ফেসবুক লাইভে...

ফেসবুকে থাকলেও লাইভে আসা হয় না। এটা আমার খুব একটা পছন্দও না। তবে হঠাৎ করেই লকডাউনের শুরুর দিকে ফেসবুকে লাইভে এসেছিলাম। দেশ-বিদেশের ২ লাখ ফলোয়ার লাইভে ছিল। সবাইকে আমি করোনার সচেতনতা নিয়ে পরামর্শ দিয়েছি।

গানে নেতিবাচক প্রভাব...

করোনার কারণে গানে প্রচন্ড নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। ভীষণভাবে ক্ষতি হচ্ছে সংগীতাঙ্গনে। গানের আসল জায়গা কনসার্ট। কনসার্ট বন্ধ থাকায় শিল্পীরা গান করতে পারছেন না। গানের অন্য মাধ্যমগুলোও স্থবির হয়ে আছে। এমতাবস্থায় শিল্পীরা কি গাইবে আর কে গান শুনবে। যদিও বন্দি সময়ে মানুষ গান শুনে সময় পার করছে। কিন্তু বিনোদিত হচ্ছে না। মন ভালো না থাকলে কোনো কিছুই ভালো লাগে না।

শুটিং শুরু হলেও কনসার্ট নেই...

কনসার্টে বহু লোকের সমাগম হয়। এই মুহূর্তে তা প্রতিটি দর্শকের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। তাই নাটক-সিনেমার শুটিং শুরু হলেও কনসার্ট করা সম্ভব নয়। শিল্পী হয়তো গান গেয়ে চলে আসবে কিন্তু দর্শকদের অবস্থা কি হতে পারে তা ভাববার বিষয়। এটা কোনো দায়িত্বের মধ্যে পড়ে না। আমি কোনোভাবেই এখন কনসার্ট করতে রাজি নই।

নতুন গানের খবর...

আঁখি আলমগীর নামে আমার একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল আছে। গত ডিসেম্বরে মায়ের জন্মদিন উপলক্ষে একটি গান প্রকাশ করেছিলাম। আর বাবার জন্মদিনে একটি ভিডিও আপলোড করেছিলাম। ভালো কিছু পরিকল্পনা থাকলেও এই মুহূর্তে ইউটিউবটি নিয়ে কিছুই করা হচ্ছে না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে কাজ শুরু করার ইচ্ছে আছে।

চুপিসারে অবহেলিতদের পাশে...

কারোনার এই দুর্যোগে অনেকেই অসহায়দের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। আমি সমাজের একশ্রেণির অবহেলিত হিজড়া, কোতি ও যৌনকর্মীদের জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। তবে কাউকে জানানোর জন্য তাদের পাশে দাঁড়াইনি। দায়িত্ববোধ থেকে কাজটি করেছি। গোপনে কাজটি করলেও ওই সম্প্রদায়ের একজন তা ফেসবুকে প্রকাশ করেন। তারপর বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। অবহেলিত ওইসব লোকদের সঙ্গে আমার যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। সুযোগ পেলে তাদের জন্য আরও কিছু করতে চাই।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে